kalerkantho

সোমবার  । ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭। ৩ আগস্ট  ২০২০। ১২ জিলহজ ১৪৪১

'কলঙ্কিনী রাধা' বিতর্ক, হিন্দুত্ববাদীদের মোক্ষম জবাব অনির্বাণের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ জুলাই, ২০২০ ২০:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'কলঙ্কিনী রাধা' বিতর্ক, হিন্দুত্ববাদীদের মোক্ষম জবাব অনির্বাণের

বাংলার জনপ্রিয় বাউলগান 'কলঙ্কিনী রাধা'-তে ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে 'হারামজাদা' বলে হিন্দুত্ববাদকে অপমান করা হয়েছে-এমন বিভ্রান্তিকর অভিযোগে নেটফ্লিক্সে গানটি ব্যবহার করা ছবি 'বুলবুল' বয়কটের ডাক দিয়েছেন উত্তর ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা। আর সেই বিষয়টি অনির্বাণ ভট্টাচার্যের নজরে আসতেই মোক্ষম জবাব দিলেন অভিনেতা। কোনো রকম কটু বাক্য নয়! একেবারে নম্র ভাষায়ই খানিক ব্যঙ্গাত্মকভাবে 'কলঙ্কিনী রাধা' গানে নতুন শব্দ প্রয়োগ করে জবাব দিলেন হিন্দুত্ববাদীদের।

'কলঙ্কিনী রাধা' গানটিতে 'কানু হারামজাদা' এবং 'কলঙ্কিনী রাধা' এই দুটি শব্দ নিয়েই মূলত আপত্তি উঠেছে। হিন্দুত্ববাদের ঝাণ্ডাধারীদের কথায়, 'গানে হিন্দুদের ভগবান কৃষ্ণকে যেভাবে 'কানু হারামজাদা' এবং তাঁর লীলাসঙ্গিনী রাধাকে 'কলঙ্কিনী' বলে বর্ণনা করা হয়েছে, তা মোটেই মেনে নেওয়া যায় না।'

আপত্তি তুলেছেন বিশেষত উত্তর ভারতের অনেকে। তাঁরা এ গানকে হিন্দুত্বেবাদের ওপর আক্রমণ হিসেবেই দেখছেন। তাঁদের বক্তব্য, 'বাংলা প্রচলিত এই লোকগীতি 'বুলবুল' সিনেমায় ব্যবহার করে অনুষ্কা শর্মা হিন্দু ধর্মকে অপমান করার ইন্ধন জুগিয়েছেন।'

তবে হিন্দুত্ববাদীদের একহাত নিতে ময়দানে নেমেছেন অভিনেতা অনির্বাণ। তাঁর ভাষার মারপ্যাঁচ চিরকালই প্রশংসিত। তাঁর শব্দচয়ন নিয়েও অবশ্য আলাদা করে বলার কিছু নেই! এ বিষয়ে বরাবরই অন্যদের থেকে আলাদা অনির্বাণ। এবার হিন্দুত্ববাদীদের আপত্তির ভিত্তিতেই 'কলঙ্কিনী রাধা' গানটির লাইন পরিবর্তন করে বিঁধলেন সমালোচকদের। 'ও কি ও… গরবিনী রাধা… কদম ডালে বসে আছে… কানু সাহেবজাদা…' এবার ঠিক আছে?

বুদ্ধিদীপ্তভাবে ব্যঙ্গাত্মক প্রশ্ন ছুঁড়েছেন অনির্বাণ। পাশে হ্যাশট্যাগ দিয়ে ‘#ভাবাবেগম্যাটার্স’ লিখে হিন্দুত্ববাদীদের ভাবাবেগের কথাও উল্লেখ করতে ভোলেননি। পাছে, তাদের আবার অভিমান হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা