kalerkantho

বুধবার । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭। ১২ আগস্ট ২০২০ । ২১ জিলহজ ১৪৪১

৬ মাসে একসঙ্গে মাত্র ২১ দিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ জুলাই, ২০২০ ১২:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৬ মাসে একসঙ্গে মাত্র ২১ দিন

বিরাট কোহলির ব্যস্ত শিডিউলের কারণে একসঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ একেবারেই পান না বিরাট কোহলি-আনুশকা। নায়িকার কথায় যখন একে অপরের কাজের জায়গায় তাঁরা হাজির হন,সেটা কোনও হলিডে নয় বরং একে অপরকে এক পলক দেখা বা একসঙ্গে একবেলার খাবার খাওয়া মাত্র। 

ভোগ ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে আনুশকা বলেন, মানুষজন ভাবে যখন আমি বিরাটের সঙ্গে দেখা করতে অন্য দেশে যাই, বা ও আমার কাজের জায়গায় আসে-সেটা হলিডে কিন্তু এক্কেবারেই তেমনটা নয়।কারণ একজন মানুষ সবসময়ই কাজে ব্যস্ত।শুনলে অবাক হবেন আমাদের বিয়ের প্রথম ছয়মাসে একসঙ্গে মাত্র ২১ দিন কাটিয়েছি আমরা। হ্যাঁ, আমি সত্যি হিসাব করে দেখেছি। তাই যখন আমি বিদেশে যাই,ওর কোনও ক্রিকেট ট্যুরে তখন হয়তো একবেলা খাবার টেবিলে আমাদের দেখা হয়-কিন্তু সেই সময়টুকুই আমাদের দুজনের জন্য মূল্যবান। 

বিরাট জানান,তাঁর মনে হয় আনুশকাকে তিনি চিরকাল ধরে চেনেন। তাঁদের কানেকশন এতটাই মজবুত। কোহলির কথায়, আমরা প্রতিদিন একে অপরের ভালোবাসায় যুক্ত হচ্ছি ,আমাদের সম্পর্কের আধারই হলো ভালোবাসা। আমাদের মনে হয় আমরা কয়েক বছর ধরে নয়, একে অপরকে আজীবন ধরে চিনি’।

তাই এক কথায় লকডাউনটা অভিশাপের মধ্যেই আশির্বাদ হয়ে নেমে এসেছে তাদের জীবনে। বিয়ের পর একসঙ্গে এক লম্বা সময় কাটানোর সুযোগ এই প্রথম পাচ্ছেন তাঁরা। আর ঘরবন্দি জীবনের নানান ঝলক ভক্তদের সঙ্গে ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে নিচ্ছেন তাঁরা। কখনও বিরাটের হেয়ার স্টাইলিস্ট আনুশকা,কখনও আবার মজাদার খেলায় মত্ত এই তারকা দম্পতি। হিন্দুস্তান টাইমস

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা