kalerkantho

সোমবার । ২৩ চৈত্র ১৪২৬। ৬ এপ্রিল ২০২০। ১১ শাবান ১৪৪১

আরটিভি আয়োজিত ‘জয়া আলোকিত নারী ২০২০’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ মার্চ, ২০২০ ১২:৩৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আরটিভি আয়োজিত ‘জয়া আলোকিত নারী ২০২০’

৮ মার্চ ২০২০ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে অষ্টমবারের মতো আরটিভি আয়োজন করে ‘জয়া আলোকিত নারী ২০২০’ সম্মাননা। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয় রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল-এর বলরুমে।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যেসব মহিয়সী নারীগণ বিশেষ অবদান রেখে চলেছেন, তাঁদের মধ্য থেকে ছয় জন নারীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এবার যাদের সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে তাঁরা হলেন স্কাউটিং সংগঠক-অধ্যাপক নাজমা শামস, কৃষিজ্ঞান-ড. তমাল লতা আদিত্য, ব্যবসায়ে নারী উদ্যোক্তা-বিবি আমেনা, চ্যালেঞ্জিং পেশা-রাবেয়া সুলতানা রাব্বি, সমাজ সেবক-হাজেরা বেগম, ক্রীড়া-রেসলার শিরীন সুলতানা।  

সম্মাননা প্রাপ্তদের উত্তরীয়, ফুল ও ক্রেস্ট প্রদান করেন যথাক্রমে মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এম.পি; মাননীয় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো: মুরাদ হাসান, এম.পি; সাবেক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, এম.পি; নাট্যজন আতাউর রহমান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, ভারপ্রাপ্ত বৃটিশ হাইকমিশনার জাভেদ প্যাটেল, যাদু শিল্পী জুয়েল আইচ, সোশ্যাল মার্কেটিং কোম্পানী’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলী রেজা খান, আরটিভির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোরশেদ আলম এম.পি; এস.এম.সি এন্টারপ্রাইজ লি:-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল হক, ইউএইস এ্যাইডের মিশন ডিরেক্টর ডেরিক ব্রাউন, আরটিভির ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ জসিমউদ্দিন; বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বেগম রুপালী হক চৌধুরী, আনোয়ার গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজের গ্রুপ ম্যানেজিং ডিরেক্টর মানোয়ার হোসেন, শিশু সাহিত্যিক আলী ইমাম, লাবিব গ্রুপের চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন আলমগীর ও ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস সুলতানা জাহান এবং আরটিভির পরিচালক বেগম বিলকিস নাহার।  

সম্মাননা প্রদানের পাশাপাশি ছিল বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে আলোকিত নারী থিম সং  পরিবেশন করেন এ সময়ের আটজন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী হৈমন্তি রক্ষিত দাস, প্রীয়াঙ্কা বিশ্বাস, মৌমিতা নদী, নওমী, অদিতি রহমান দোলা,  টিনা রাসেল, অংকন ইয়াসমিন ও আসিয়া দোলা। গানটি লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন। সুর ও সংগীত পরিচালনায় এস আই টুটুল। বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে সমবেত কন্ঠে গান পরিবেশন করেন অবন্তি সিঁথী, কাজী নওরীন, সাবিলা শুক্লা ও সভ্যতা। নারীর অগ্রযাত্রা নিয়ে ‘স্বপ্ন জয়ের আলো’ থিমেটিক ডান্স পরিবেশন করেন সাবরিনা নিসা, মোহনা মীম, প্রথমা এবং নৃত্যালোক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের শিল্পীবৃন্দ। গ্রন্থনা: আনজির লিটন ও কোরিওগ্রাফ করেছেন কবিরুল ইসলাম রতন। এছাড়া চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও সোহাগ ডান্স ট্রুপের পরিবেশনায় একটি নাচ। কোরিওগ্রাফ করেছেন ইভান শাহরিয়ার সোহাগ। 

বিশ্বখ্যাত রূপকথার কয়েকটি বিখ্যাত চরিত্র নিয়ে ক্যারেকটার কিউ ‘রূপকথার রাজকন্যারা’। কোরিওগ্রাফি করেন বুলবুল টুম্পা। ক্যারেক্টার কিউ-এর পরিকল্পনা, গ্রন্থনা ও ভাষ্যপাঠ করেছেন সৈয়দ সাবাব আলী আরজু। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা