kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

অথচ প্রেমের সম্পর্ক ছিল তাদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১২:৪৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অথচ প্রেমের সম্পর্ক ছিল তাদের

গত বছর ১৩ ডিসেম্বর দীর্ঘদিনের বন্ধুকে বিয়ে করেছিলেন ভারতীয় টেলিভিশনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্বেতা বসু প্রসাদ।  প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু বিয়ের সুখ আর টিকল না তার কপালে।  বিয়ের বছর না ঘুরতেই এল ভাঙনের খবর।

জিনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোহিত মিত্তলের সঙ্গে বিয়ে হয় শ্বেতা বসু প্রসাদের। আর ক'দিন পরেই তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী উদযাপনের কথা ছিল। কিন্তু হঠাৎই এ অভিনেত্রী নিজের বিচ্ছেদের কথা জানানোয় হতাশ হয়েছেন তার ভক্তরা।

তিনি জানান, রোহিত এবং তিনি একসঙ্গে বসে আলোচনা করেই  বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিয়ের পর রোহিতের সঙ্গে যে স্মৃতি রয়েছে, তা অক্ষুণ্ণ থাকবে। সেই স্মৃতির পাতা উলটেই এবার তারা একসঙ্গে বিয়ে ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে 'মাকড়ি' খ্যাত এ অভিনেত্রী।

বেশ ধুমধাম করেই রোহিতের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন তিনি। লাল রঙের বেনারসি শাড়ি পরে একেবারে বাঙালি সাজেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন শ্বেতা। তার বিয়েতে দক্ষিণী সিনেমা জগতের তারকারা হাজির হন। বিয়ের পর শ্বেতা এবং রোহিতের রিসেপশনের আসরও বসে বেশ জমকালোভাবেই। তবে বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যে থেকেই রোহিতের সঙ্গে মনোমানিল্য শুরু হয় শ্বেতা বসু প্রসাদের। এরপরই তারা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন।

স্বামী রোহিত মিত্তলের কছ থেকে কি কারণে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্বেতা; এ বিষয়ে স্পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা