kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জানুয়ারি ২০২০। ১৪ মাঘ ১৪২৬। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪১     

যে কারণে সন্ন্যাসিনী না হয়ে অভিনেত্রী হলেন জ্যাকুলিন!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১৯:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যে কারণে সন্ন্যাসিনী না হয়ে অভিনেত্রী হলেন জ্যাকুলিন!

শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ প্রথম জীবনে নাকি সন্ন্যাসিনী হতে চেয়েছিলেন! কিন্তু পরে আর তা না হয়ে হলেন একেবারেই উল্টোটা- সিনেমার নায়িকা। সন্নাসিনী হওয়ার স্বপ্ন ত্যাগ করে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় গেলেন। ২০০৬ সালে মিস ইউনিভার্স শ্রীলঙ্কার মুকুট জয় করে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করলেন।

এরপর ২০০৯ সালে ভারতে এক মডেলিংয়ের কাজে এসে তিনি ফ্যান্টাসিধর্মী আলাদিন চলচ্চিত্রের জন্য অডিশন দেন। অডিশনে তিনি নির্বাচিত হন এবং এ ছবির মাধ্যমে তার বলিউডে অভিষেক হয়।

অথচ ৩৪ বছর বয়সী এ শ্রীলঙ্কান বিউটি জীবনের শুরুতে অভিনেত্রী হতে চাননি একেবারেই। ইচ্ছা ছিল অন্য কিছু হওয়ার। অন্যভাবে নিজের জীবন সাজানোর কথা ভেবেছিলেন তিনি।

সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার টক শোতে তিনি বলেন, তার খুবই ইচ্ছা ছিল সন্ন্যাসিনী হওয়ার। যে জ্যাকের ক্যারিশমায় হুঁশ হারায় নেটিজেনরা সে নাকি কোনও এক সময় গ্ল্যামারের বিপরীতে গিয়ে একবারে অন্য পথে হাঁটতে চেয়েছিলেন। কিন্তু কেন? আর কেনই বা সেই পথে পা না দিয়ে সম্পূর্ণ বিপরীত দুনিয়ায় পা বাড়ালেন তিনি?

জ্যাকলিন বলেন, ‘কনভেন্ট স্কুলে পড়াশোনা করেছি। নানরা আমাদের ক্লাস নিতেন। ওদের লাইফস্টাইল বেশ লাগত আমার। রোজ চার্চে যেতাম। গান গাইতাম। মনে হতো আমার আর কোথাও যাওয়ার দরকার নেই।’

তাহলে হঠাৎ সেই চিন্তা থেকে সরেই বা এলেন কেন? কেন হলেন না সন্ন্যাসিনী?

জ্যাকুলিনের সহাস্য উত্তর, ‘তখন থেকেই তো ছেলেদের ওপর ক্রাশ জন্মাতে লাগল। আর আমি বুঝে গেলাম। সন্ন্যাসিনী হওয়া আমার কর্ম না।’

২০০৯ সালে আলাদিন ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন জ্যাকুলিন। এর পর একে একে ‘হাউজফুল’, ‘মার্ডার ২’, ‘রেস ২’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে জার্নি পাকা করেন তিনি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা