kalerkantho

শনিবার । ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৯ রবিউস সানি ১৪৪১     

জুনের 'ভুল স্বামী' নিয়ে তুলকালাম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১৩:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জুনের 'ভুল স্বামী' নিয়ে তুলকালাম

যুক্তরাষ্ট্রে পরিবার নিয়ে বেশ ভালোই দিন গুজরান হচ্ছিল স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্কের অধ্যাপক সৌরভ চট্টোপাধ্যায়ের। কিন্তু জুন মাল্যর বিয়ের খবর সামনে আসতেই বেজায় বিপাকে পড়েছেন তিনি! ভাবছেন তো, জুনের বিয়ের সঙ্গে সুদূর স্ট্যানফোর্ডের অধ্যাপক সৌরভের ফ্যাসাদে পড়ার কী সম্পর্ক?

সব রহস্য লুকিয়ে ওই ‘সৌরভ’ নামের মধ্যেই! কিছু দিন আগে অভিনেত্রী নিজেই জানিয়েছিলেন, ১ ডিসেম্বর বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন তিনি। তাঁর হবু বরের নাম সৌরভ চট্টোপাধ্যায়। আর সেখানেই গোলমালের সূত্রপাত। সংবাদ মাধ্যমের একটি অংশ আমেরিকাবাসী সেই অধ্যাপকের ছবি দিয়ে লিখে দেয়, ওঁর সঙ্গেই নাকি সাত পাকে বাঁধা পড়ছেন জুন!
এমনিতেই সবাই জুনের হবু বরের ছবি দেখার জন্য উন্মুখ হয়েই ছিলেন, তাই ‘ভুল’ সৌরভের ছবি প্রকাশ পাওয়া মাত্রই তা ভাইরাল হয়ে যায়। আর বিদেশে বসে থাকা সেই সৌরভও নিজের অজান্তেই আচমকাই চলে আসেন প্রচারের আলোয়।

বন্ধুবান্ধব, আত্মীয় পরিজন...একের পর এক ফোন আসতে থাকে তাঁর কাছে। একটাই প্রশ্ন জুনকে বিয়ে করছ? দয়া করে শুনুন, আমার সঙ্গে জুনের বিয়ে হচ্ছে না।আমি আমার পরিবার নিয়ে খুব খুশি। এই ক’দিনে একই উত্তর দিতে দিতে নাজেহাল হয়ে পড়েছেন অঙ্কের অধ্যাপক।

কিছু দিন আগে এক সংবাদমাধ্যমের তরফে ‘নকল’ সৌরভের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “প্রথম যখন জানতে পারি আমায় নিয়ে এ ভাবে ভুল তথ্য ছড়ানো হচ্ছে আমি শকড হয়ে গিয়েছিলাম। সবার কাছে জবাব দিতে দিতে আমি ক্লান্ত। যাঁরা খবরটা করেছিলেন তাঁরা একবারও যাচাই পর্যন্ত করেননি। 

জুন বলেন, আমেরিকাবাসী সেই অধ্যাপক হ্যাপিলি ম্যারেড।এভাবে কনফার্ম না হয়ে খবর করায় সেই ব্যক্তিরও হ্যারাসমেন্ট হয়েছে। আমরা যাঁরা বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত তাঁরা এসব রিউমারের সঙ্গে ইউজড টু হলেও সেই মানুষটা তো ইনোসেন্ট। তিনি তো কিছুই জানেন না এসবের! আনন্দবাজার ডিজিটাল 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা