kalerkantho

শনিবার । ২৩ নভেম্বর ২০১৯। ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বাবরি মসজিদ রায় নিয়ে কী বলছেন কঙ্গনা-ফারহা খানরা?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবরি মসজিদ রায় নিয়ে কী বলছেন কঙ্গনা-ফারহা খানরা?

ভারতে আলোচিত বাবরি মসজিদ মামলার রায় দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। আজ শনিবার এই মামলার রায় দেন ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। আর এই রায় নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

রায় ঘোষণার পর প্রথম টুইটটিই করেন কঙ্গনা রানাওয়াত। কঙ্গনা নিজের টুইটারে লেখেন, ‘এই রায়ই প্রমাণ করে দিয়েছে আমরা সকলেই কিভাবে শান্তিতে এবং একত্রে থাকতে পারি। এটাই আমাদের মহান দেশের সৌন্দর্য। আমি সকলকে অনুরোধ করব আমাদের এই বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যকে উদযাপন করতে।’ সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ শুনে অভিনেত্রী তাপসী পন্নু লিখেছে, ‘হয়ে গেছে, কিন্তু এবার?’

‘প্যায়ার কা পঞ্চনামা’ খ্যাত অভিনেতা দিব্যেন্দু শর্মা লেখেন, খুবই সামঞ্জস্যপূর্ণ রায়। খুবই গুরুত্বপূর্ণ সর্বসম্মত রায়। আমাদের বিচার ব্যবস্থাকে সম্মান করা উচিত। আরো একটি টুইটে দিব্যেন্দু লেখেন, এই বিজ্ঞানসম্মত রায়ের জন্য ভারতীয় প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের যথেষ্ঠ অবদান রয়েছে।

শীর্ষ আদালতের রায় নিয়ে অভিনেত্রী হুমা কুরেশি বলেন, আমার প্রিয় ভারতবাসী, সকলের কাছে অনুরোধ, দেশের শীর্ষ আদালতের দেওয়া এই রায়কে সম্মান জানান। আমাদের সকলের একত্রিত হয়ে দেশের জাতীয় স্বার্থে এগিয়ে চলা উচিত।

অভিনেতা কুনাল কাপুর লেখেন, এই সময়টা শান্তি বজায় রাখার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ সময়। এই বিষয় নিয়ে স্পর্শকাতর না হয়ে ঐক্যবদ্ধ ভারত গড়ার সময় এসেছে।

অভিনেতা বিক্রান্ত মাসে লেখেন, আজকের দিনটা ভীষণই উজ্জ্বল। গতকালের থেকে আগামীকালটা আরো ভালো হতে পারে। আমাদের উচিত একটা শক্তিশালী ঐক্যবদ্ধ ভারত গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়া।

বলিউডের পরিচালক ও প্রযোজক ফারহা খান লেখেন, আমার কাছে মন্দির, মসজিদ ও চার্চ সবই ইট-কাঠ-পাথরের বস্তু ছাড়া আর কিছুই নয়। আসল প্রার্থনা আসে একেবারে হৃদয় থেকে। তবে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে আমি খুশি। এবার আমাদের মন্দির-মসজিদ নিয়ে ভাবনা ছেড়ে ঐক্যবদ্ধ জাতি ও দেশ গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়া উচিত।

তবে বাবরি মসজিদ মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি শাহারুখ খান, সালমান খান, আমির খান ও অক্ষয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা