kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি নির্বাচন

আমি কি শিল্পী নই, আমাকে কেন বাদ দেয়া হলো?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আমি কি শিল্পী নই, আমাকে কেন বাদ দেয়া হলো?

এই সময়ের সম্ভাবনায় অভিনেতা জিয়াউল রোশান। ইতোমধ্যে নিজের নামকে আলোকিত করেছেন কয়েকটি ছবি করে।  রক্ত চলচ্চিত্র দিয়ে ঢাকাই ছবিতে পা রেখেই নজড় কাড়েন সবার। যেমন লুক তেমনই উচ্চতা। এই নজর এড়ায়নি কলকাতার জনপ্রিয় নায়ক দেবের। তিনি ঢাকা থেকে উড়িয়ে নিয়ে যান রোশানকে। 

সহশিল্পী হিসেবে ককপিট চলচ্চিত্রে অভিনয় করে সুনাম কুড়ান রোশান। দুই বাংলায় এই চলচ্চিত্র নিয়ে আলোচনা তৈরি হয়। ঢাকারে পর্দাতেও মুক্তি পায় ককপিট। সর্বশেষ 'বেপরোয়া' ছবি শাকিব খানের ছবির বিপরীতে ভালো ব্যবসা করে। এই জনপ্রিয় অভিনেতা এবার নিজ দেশের চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটাধিকার হারিয়েছেন। অথচ গত নির্বাচনেও ভোট দিয়েছিলেন রোশান।

এই ঘটনায় বিস্মিত হয়েছেন হালের সেনসেশন। কালের কণ্ঠকে বললেন, 'চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি আমাকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে। আমি খুবই বিস্মিত হয়েছি। তারা আমাকে শিল্পীই মনে করেনি। সংবিধান অনুযায়ী যে নিয়মে শিল্পীদের বাতিল করেছে সে নিয়ম আমার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।'     

আমি কি শিল্পী নই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বললেন, 'চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির সিস্টেমের প্রতি আমি আস্থাহীন হয়ে পড়লাম। এটা প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়েই আমাকে বাদ দিয়েছে তারা।'

জানা গেছে, চলতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। যেখান থেকে ১৮১ জনকে ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তবে জায়েদ খান বলছেন সংবিধান মেনেই এই তালিকা করা হয়েছে।  

এই মুহূর্তে জিন চলচ্চিত্রের শুটিং করছেন রোশান। হাতে রয়েছে সুপারস্টারের জীবনের গল্প নিয়ে 'মেকআপ' ছবি। এছাড়াও রোশান চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন একাধিক ছবিতে।

শিল্পীদের বাদ দেওয়া প্রসঙ্গে জায়েদ খানের বক্তব্য

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা