kalerkantho

সোমবার । ১৮ নভেম্বর ২০১৯। ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

কারিনা-কারিশমা লোকাল বাসে চড়েই স্কুল-কলেজে যেতেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কারিনা-কারিশমা লোকাল বাসে চড়েই স্কুল-কলেজে যেতেন

তাঁদের বড় হাওয়া, জীবনযাপনের ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এসেছেন তাঁদের মা ববিতা কাপুর। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এবিষয়েই মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী কারিশমা কাপুর। শুধু তাঁরই নয়, তাঁর বোন কারিনার জীবনেও মা ববিতা কাপুরের সমান ভূমিকা রয়েছে বলে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে স্বীকার করে নেন কারিশমা।

কারিশমার কথায়, বরাবরই অভিনয় নিয়ে তাঁর একটা অন্যরকম আবেগ কাজ করতো। তবে যতক্ষণ না মা ববিতা কাপুর বলতেন যে এই চরিত্রটাতে অভিনয় করতে পারো, ততক্ষণ পর্যন্ত তিনি সেবিষয়ে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠতে পারতেন না। তিনি আরও জানান, 'কাপুর পরিবারের মতো খ্যতনামা বংশে জন্ম নেওয়ার পরও মা (ববিতা কাপুর) আমাদের সাধারণ ছিমছাম জীবনযাপন করতেই শিখিয়েছেন। আমি আর আমার বোন কারিনা বাসে এবং লোকাল ট্রেনে করেই স্কুল কলেজে যেতাম।'

কারিশমা আরও জানান, ১৯৯৪ সালে 'সেক্সি, সেক্সি মুঝে লোক বোলে' গানের জন্য তিনি সমালোচিত হয়েছিলেন, তবে সেসময় মা ববিতাই তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন এবং বলে ছিলেন, একজন অভিনেত্রীর কাজই হলো দর্শকদের বিনোদন দেওয়া।

এখানেই শেষ নয়, সাক্ষাৎকারে দাদু রাজ কাপুরকে নিয়েও মুখ খোলেন কারিশমা তিনি বলেন, ছোট থেকেই আমি দাদুর সঙ্গে শ্যুটিং সেটে যেতাম, তাঁর (দাদু রাজ কাপুর) প্রতিভা দেখে আমি শুধুই অভিভূত হয়েছি। যখন তিনি (রাজ কাপুর) রাম তেরি গঙ্গা মাইলি ছবিটি পরিচালনা করছিলেন, তখন সেই ছবির শ্যুটিং সেটে গিয়েই আমার ক্যামেরা, লাইটের প্রতি আগ্রহ জন্মায়, ঠিক করে ফেলি পরিবারের গৌরবকেই এগিয়ে নিয়ে যাব। তবে দাদুকে যখন আমি একথা বলি, তখন উনি বলেন, এটা কিন্তু মোটেও সহজ নয় , এটা জন্য পরিশ্রম করতে হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা