kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

নার্গিস ফাখরির সাথে কী বিষয়ে আড্ডা?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:৫১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নার্গিস ফাখরির সাথে কী বিষয়ে আড্ডা?

ঢাকাই চলচ্চিত্রের কিং খান নামে খ্যাত শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করবেন নারগিস ফাখরি। টিএম ফিল্মস এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী আয়োজনে তেমনটাই ইঙ্গিত দিলেন এর কর্ণধার কৌশিক হোসেন তাপস। অবশ্য বিষয়টি প্রায় নিশ্চিতও করেই বললেন তাপসের একজন কাছের মানুষ।
 
মিউজিক ফর পিস কনসার্টের আয়োজনের ফাঁকে একমঞ্চে উপস্থিত হন দেশের জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্র তারকারা। এ সমাবেশে মধ্যমনি হয়ে উপস্থিত ছিলেন বলিউডের হালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নারগিস ফাখরি। উপস্থাপিকা শিনা চৌহানের প্রশ্ন, এরপর কি বাংলাদেশের ফিল্মেও পাওয়া যাবে তাকে? সে উত্তর কৌশলে এড়িয়ে গেলেন নারগিস ফাখরি। বললেন, “এ বিষয়টা এখন সিক্রেট থাক, সময় হলেই সব জানতে পারবেন।”
 
পরবর্তীতে টিএম ফিল্মস এর যাত্রা ঘোষণা করেই তাপসের চোখ শাকিবের দিকে। শাকিব খানের কাছে প্রশ্ন, আপনার সময় মিলবে তো? শাকিব খান জানালেন, টিএম ফিল্মস এর জন্য যে কোনও সময়ই তিনি দিতে প্রস্তুত।
 
নারগিস ফাখরিকে ইঙ্গিত করে তাপস বললেন, ধরুণ আপনার পাশে যিনি দাঁড়িয়ে আছেন তার বিপরীতেই যদি আপনাকে পেতে চাই? শাকিব খান যেন কৌশলী হয়ে উঠলেন, বললেন, “নারগিস ফাখরি তার বক্তব্যে বলেছেন, বিষয়টা সিক্রেট থাক। আমিও বলতে চাই বিষয়টা সিক্রেট থাকুক। এখনই সব বলে না দেই। অবশ্যই কাজ করবো।” পাশে দাঁড়ানো নারগিস ফাখরিকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন শাকিব, “রাইট ফাখরি?” নারগিস ফাখরি সম্মতিসূচক মাথা নাড়েন।
 
শাকিব ও ফাখরির সম্ভাব্য জুটি কোন পথে এগোচ্ছে তা জানা না গেলেও টিএম ফিল্মস যে বিষয়টি নিয়ে বেশ জোরালো তৎপর। অনুষ্ঠান পরবর্তী সময়েও একই ফ্রেমে পাওয়া গেল শাকিব খান ও নার্গিস ফাখরিকে। টিএম ফিল্মসের কর্ণধার কৌশিক হোসেন তাপসের শেয়ার করা দুটো ছবিতেই নার্গিস ও শাকিব ছিলেন প্রাণোচ্ছ্বল, আড্ডায় মত্ত। তবে তাদের মধ্যে কী বিষয়ে আড্ডা হলো, কোন প্রসঙ্গে কথা হলো জানা যায়নি। শুধু এতোটুকু বোঝা গেলে বাংলাদেশের শীর্ষ নায়কের সাথে বলিউডের এই নায়িকার বন্ধুত্ব সম্পর্কের সূচনা ঘটেছে এটা নিয়ে নিশ্চই দ্বিমত নেই কারো।
 
নার্গিস ফাখরি একজন আমেরিকান অভিনেত্রী ও মডেল। তিনি বলিউডে রকস্টার চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিষিক্ত হন। অভিষেক নায়িকা হিসেবে ভারতের আইফা অ্যাওয়ার্ড পান।
 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা