kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

জাতীয় সঙ্গীত অবমাননার অভিযোগ অস্বীকার করলেন নোবেল

বিশেষ প্রতিনিধি, নিউইয়র্ক   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৮:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় সঙ্গীত অবমাননার অভিযোগ অস্বীকার করলেন নোবেল

কোনভাবেই জাতীয় সঙ্গীতকে অবমাননা করেননি বলে দাবি করেছেন ভারতের জি বাংলার গানবিষয়ক রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা' -খ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল। নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমনটি বলেছেন। 

শো টাইম মিউজিকের উদ্যোগে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর রবিবার নিউইয়র্কের বেলোজিনো পার্টি হলে গান গাইবেন নোবেল। সে উপলক্ষ্যে আয়োজিত একটি সংবাদ সম্মেলনে মঙ্গলবার কথা বলেন তিনি। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন আয়োজক প্রতিষ্ঠানের প্রধান আলমগীর খান আলম। 

ভারতের জি বাংলার গানবিষয়ক রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা-২০১৯’ তে তৃতীয় স্থান অর্জনকারী নোবেল জাতীয় সঙ্গীতকে নিয়ে মন্তব্য করে তুমুল বিতর্কে জড়ান। দেশে এ নিয়ে অনেকেই প্রতিবাদে সরব হয়েছেন। এমনটি নোবেলের মন্তব্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে নিউইয়র্কেও। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে তিনি জাতীয় সংগীতকে অপমান করেছেন। অভিযোগে বলা হয়, এক লাইভ সাক্ষাৎকারে নোবেল বলেছেন, ‘রবীন্দ্রনাথের লেখা জাতীয় সংগীত ‘আমার সোনার বাংলা’ যতটা না দেশকে প্রকাশ করে তার চেয়ে কয়েক হাজার গুণ বেশি প্রকাশ করেছে প্রিন্স মাহমুদের লেখা ও জেমস এর গাওয়া ‘বাংলাদেশ’ গানটি।

তবে নিউইয়র্কের সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নোবেল। এক প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, "আপনারা অনেকে হয়তো শুনছেন কথাটা। জাতীয় সঙ্গীত চেঞ্জ করতে চাই হেন তেন বহু কিছু। আমি বলছি আমাদের দেশটাকে এক্সপ্লেইন করে, আমাদের দেশটাকে একেবারে আক্ষরিক অর্থে এক্সপ্লেইন করে জেমস ভাইয়ের ‘সোনার বাংলা’ গানটা। আমি কিন্তু একবারও বলি নাই, এই গানটা জাতীয় সঙ্গীত হওয়া উচিত।"

তার বক্তব্যের জন্যে অনুতপ্ত কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে নোবেল বলেন, “এটা ১১ মাস আগের একটি বক্তব্য। সেখানে একবারও বলি নাই এই গানটা জাতীয় সঙ্গীত হওয়া উচিত। অনুতপ্ত হওয়ার কিছু নাই। কিন্তু হয়তো কথাটা মানুষের কানে অন্যভাবে পৌঁছাইছে। আমি এক ফ্রিকোয়েন্সিতে বলছি, আরেক ফ্রিকোয়েন্সিতে মানুষের কানে বাড়ি খাইছে। মানুষের বুঝতে ভুল হইছে। কিন্তু আমি কিন্তু সেইভাবে বলি নাই। মানুষের কাছে ভুল বার্তা গেছে, এই জন্যে আমি দুঃখপ্রকাশ করছি।" 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা