kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ নভেম্বর ২০১৯। ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

শরীরে কিসের এতো দাগ? সমালোচনার তীরে জারিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৭:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শরীরে কিসের এতো দাগ? সমালোচনার তীরে জারিন

ওজন কমালে বা প্রেগন্যান্সির পরে স্ট্রেচ মার্কস একটি অত্যন্ত স্বাভাবিক বিষয়। তবুও তা নিয়ে হীনমন্যতায় ভোগেন অনেক নারী। তারকাদের ক্ষেত্রে আবার অনেকে এই স্ট্রেচমার্কসের কারণে সমালোচনায় শিকার হন। ঠিক যেমনটা হলো অভিনেত্রী জারিন খানের সঙ্গে। শরীরের স্ট্রেচ মার্কসের কারণে সোশ্যল মিডিয়ায় আক্রমণের শিকার হয়েছেন জারিন। তবে এক্ষেত্রে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন আনুশকা শর্মা।

সম্প্রতি, ইনস্টাগ্রামে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেন জারিন। সেখানে জারিনের শরীরের স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে তাঁকে ট্রোল করতে থাকেন অনেকেই। 

যদিও এক্ষেত্রে ট্রোলিং জবাবও দিতে ছাড়েননি জারিন। জারিনের হয়ে মুখ খোলেন তার ভক্তরাও। এক্ষেত্রে জারির সাফ জবাব, ওজন কমানোর পর শরীরে স্ট্রেচ মার্কস অত্যন্ত সাধারণ একটা বিষয়। স্ক্রিনশটের স্ট্যাটাস দিয়ে তাঁকে নিয়ে করা ট্রোলিংয়ের জবাব দেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি যাঁরা তাঁকে সমর্থন করেছেন তাঁদের প্রশংসা করতেও ভোলেননি তিনি। 

জারিন বলেন, প্রায় ৫০ কেজিরও বেশি ওজন কমালে স্ট্রেচ মার্কস থাকাটা খুবই স্বাভাবিক। জারিন আরও জানান, চিরকালই স্বাভাবিক শরীরিক সৌন্দর্যে বিশ্বাস করে এসেছি। তাই স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না। "ফটোশপ বা সার্জারি না করলে স্বাভাবিক মানুষের শরীর এমনই হয়, স্টেটাসে লেখেন জারিন। 

এক্ষেত্রে, জারিনের পাশে দাঁড়িয়েছেন আনুশকা। তিনি লেখেন, জারিন তুমি যেরকম, সেরকমই তুমি সুন্দর, সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী! আনুশকার এই স্টেটাসের প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরাও। যেভাবে একজন অভিনেত্রী হয়ে আরেক অভিনেত্রীকে ভরসা জোগালেন, তারই আলোচনা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা