kalerkantho

সুচিত্রা-শাবানার অভিনয় দেখতে দেননি পরিচালক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১০:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুচিত্রা-শাবানার অভিনয় দেখতে দেননি পরিচালক

২০ সেপ্টেম্বর কলকাতায় মুক্তি পেতে যাচ্ছে জ্যোতিকা জ্যোতি অভিনীত ‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’। প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের পরিচালনায় ছবিতে জ্যোতির সহশিল্পী ঋত্বিক চক্রবর্তী। ছবিটির প্রচারণায় অংশ নিতে এ সপ্তাহেই কলকাতা যাবেন তিনি। জ্যোতির সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

কলকাতার বিমান ধরছেন কবে?

৩১ আগস্ট মিউজিক লঞ্চ। তার আগেই যেতে হবে। ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রচুর ইভেন্ট আছে। প্রতিটিতে হাজির থাকতে চাই। ‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’ দিয়ে ভারতে আমার অভিষেক হবে, তাই আলাদা করে সময় দেব।

কোথায় কোথায় শুটিং করেছেন?

ছবির বড় একটি অংশের শুটিং হয়েছে সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে। এ ছাড়া পুরুলিয়া ও কলকাতার আশপাশের বিভিন্ন লোকেশনে শুটিং করেছি।

সহ-অভিনেতা হিসেবে ঋত্বিক চক্রবর্তী কেমন?

ঋত্বিক দাদা অনেক বড় মাপের অভিনেতা। প্রথমে ভেবেছিলাম অনেক গুরুগম্ভীর মানুষ হবেন। কাজ করতে গিয়ে উপলব্ধি হলো, তাঁর মতো এত সহজ-সরল আর মিশুক মানুষ জীবনে খুব কম দেখেছি। মনে হয়েছে আমরা অনেক দিনের চেনা।

১৯৫৮ সালে কলকাতায় ও ১৯৮৭ সালে বাংলাদেশে ‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’ নির্মিত হয়েছিল। ছবি দুটিতে রাজলক্ষ্মী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সুচিত্রা সেন ও শাবানা। আপনি কি ছবি দুটি দেখেছিলেন?

আমার খুব ইচ্ছা ছিল সুচিত্রা ও শাবানা ম্যাডামের ছবি দুটি দেখার। কিন্তু পরিচালক একদম ‘না’ করে দিলেন। জানালেন, আমি তাঁদের অভিনয় দেখলে হয়তো অনুকরণ করতে পারি। সেটা তিনি চান না। আমি তাঁর কথাকে প্রাধান্য দিয়েছি।

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের উপন্যাসের গল্পের সঙ্গে এই ছবির গল্পের কী পার্থক্য?

গল্প নিয়ে কিছুই বলতে চাই না। তাহলে দর্শকদের আগ্রহ নষ্ট হবে। শুধু এটুকু জেনে রাখুন, এই ছবির প্রেক্ষাপট নব্বইয়ের দশকের। সীমান্তে অনুপ্রবেশকারী কিছু উদ্বাস্তু পরিবার ও তাদের সংগ্রাম নিয়ে গল্প।

‘রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত’ কি বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে?

ট্রেলার প্রকাশের পর বাংলাদেশের মানুষ খুব প্রশংসা করেছেন। সবাই মুখিয়ে আছেন ছবিটি দেখার জন্য। পরিচালকও চান ছবিটি এখানে মুক্তি পাক। সেভাবে তিনি এগোচ্ছেনও। দেখা যাক কী হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা