kalerkantho

নেতাজিকে নিয়ে ছবি 'গুমনামী' : মামলার হুমকিতেও ভয় পাচ্ছেন না সৃজিত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ আগস্ট, ২০১৯ ১৭:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেতাজিকে নিয়ে ছবি 'গুমনামী' : মামলার হুমকিতেও ভয় পাচ্ছেন না সৃজিত

নেতাজি সুভাসচন্দ্র বসুর অন্তর্ধানের পর আবির্ভাব হয়েছিল 'গুমনামী বাবা'র। অনেক ঐতিহাসিক এই গুমনামী বাবাকেই নেতাজি হিসেবে মনে করেন। এবার সেই কাহিনী নিয়ে টালিউডের প্রখ্যাত পরিচালক সৃজিত মুখার্জী নির্মাণ করছেন 'গুমনামী বাবা'। কিন্তু এই মুভি নিয়েই তৈরি হয়েছে তুমুল বিতর্ক। নেতাজি গবেষকদের একাংশ এই মুভির বিরোধিতা করছেন। এক গবেষক তো সৃজিতকে আইনী নোটিশ পাঠিয়েছেন। হুমকি দিয়েছেন মামলার। তবে কোনো কিছুতেই ভয় পাচ্ছেন না সৃজিত।

গুমনামী বাবাকে নিয়ে ছবি করার কথা ঘোষণার পরই আপত্তি জানিয়ে ছিলেন বসু পরিবারের একাংশ। নেতাজির প্রপৌত্র চন্দ্র বসুও এর প্রতিবাদ করেন। টিজার মুক্তির পর তিনি বলেন, 'নেতাজির সঙ্গে গুমনামী বাবার যোগসূত্র স্থাপনের চেষ্টা ভুল। যদি কোনও প্রমাণ থেকে থাকে, তা হলে প্রকাশ করার আবেদন জানাচ্ছি। কোনও তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই কেন নেতাজির সঙ্গে গুমনামী বাবাকে মিলিয়ে দেওয়া হল? তার প্রতিবাদ জানাচ্ছি আমরা।'

যদিও বিষয়টিকে একেবারেই পাত্তা দিচ্ছেন না সৃজিত। তার কথায়, 'মুখার্জি কমিশনের রিপোর্টের ভিত্তিতে ছবি বানাচ্ছি। আমাকে কেউ আটকাতে পারবে না।' কিন্তু নেতাজির প্রপৌত্র চন্দ্র বসু দাবি করেন, 'মুখার্জি কমিশনের রিপোর্ট তো বাতিল করেছিল ভারত সরকার। যেটা বাতিল হয়েছে, তার ভিত্তিতে কীভাবে একটা মুভি হতে পারে? ব্যবসায়িক কারণে গুমনামী বাবার সঙ্গে নেতাজিকে মিলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।'

'গুমনামী' সিনেমায় নেতাজির চরিত্রে অভিনয় করছেন ওপার বাংলার খ্যাতিমান অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। স্বাধীনতা দিবসে টিজার মুক্তি পায়। বেলগাছিয়ার বাসিন্দা নেতাজি গবেষক দেবব্রত রায়ের পক্ষ থেকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে চিত্রপরিচালক সৃজিত মুখার্জী এবং প্রযোজক সংস্থাকে। দেবব্রতর আইনজীবী প্রদীপ কুমার রায় বলেছেন, 'আমার মক্কেলের পক্ষ থেকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এর জবাব যদি না পাওয়া যায়, তাহলে হাইকোর্টে মামলাও করা হতে পারে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা