kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

'রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে পরীক্ষা করার যোগ্যতা আমাদের কোথায়?‌'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১২:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে পরীক্ষা করার যোগ্যতা আমাদের কোথায়?‌'

রবি ঠাকুরের গান নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা অজ্ঞানতার কথা। রবীন্দ্রনাথকে বুঝতেই তো আরও কয়েক শতাব্দী লেগে যাবে। রবীন্দ্রনাথ এমন একজন মনীষী, যিনি সঙ্গীতের প্রতিটি ক্ষেত্রকে আত্মস্থ করে তবেই সঙ্গীতের রাজ্যে বিচরণ করেছেন। তাঁর মতো একজন মহীরূহকে ধরা মুখের কথা নয়।

বলছিলেন আরতি মুখোপাধ্যায়। রবীন্দ্রসঙ্গীত নিয়ে তো বটেই, রিয়্যালিটি শো নিয়েও তিনি আক্রমণাত্মক। কারণ, গানটা তাঁর কাছে ব্যবসা নয়। প্রাণের আরাম। 

কলকাতার গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আরতি মুখোপাধ্যায় বলেন, 'রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে পরীক্ষা করার যোগ্যতা আমাদের কোথায়?‌ আর পরীক্ষার ফলই বা কী হচ্ছে?‌ কিছুই না। নিতান্ত বোকামি হচ্ছে।  আমি রবীন্দ্রনাথের গান শিখেছি দেবব্রত বিশ্বাসের কাছে। আমার কাছে ওসব উল্টোপাল্টা কাজের কোনও জায়গা নেই। শুনতেও চাই না। রবীন্দ্রনাথের কোনও প্রতিপক্ষ হয় না। রবীন্দ্রনাথকে বুঝতে গেলে ভাষার জ্ঞান থাকতে হবে। শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে দখল রাখতে হবে এবং পাশ্চাত্য সঙ্গীতটাকেও আত্মস্থ করতে হবে। যাঁরা রবীন্দ্রনাথের গান নিয়ে পরীক্ষা করছেন তাঁদের লেভেলটা ঠিক কোথায়, সেটা আগে জানা দরকার।'

আরতি মুখোপাধ্যায় বলেন,'রবীন্দ্রনাথ নিজস্ব দর্শন, ভারতীয় ঐতিহ্য, নিজস্ব চিন্তাভাবনা এবং সাহিত্যগুণ মিশিয়ে একটা গান তৈরি করতেন। যিনি ওই গানগুলো গাইবেন, তাঁদেরও ওই দর্শনটাকে ছঁুতে হবে। তাঁকে বুঝতে হবে। তবেই তো গান গাইবার সার্থকতা। আমি আবার বলছি, আমি রবীন্দ্রনাথের গান শিখেছি দেবব্রত বিশ্বাসের কাছে। আমার কাছে রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে কোনও অমূলক কাজের জায়গা নেই।' 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা