kalerkantho

সোমবার। ১৯ আগস্ট ২০১৯। ৪ ভাদ্র ১৪২৬। ১৭ জিলহজ ১৪৪০

টুপি খুলে আইয়ুব বাচ্চুর প্রতি শ্রদ্ধায় অবনত হলেন নোবেল

মাহতাব হোসেন   

২০ জুলাই, ২০১৯ ০১:৫১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আগের পারফর্মার বলিউডের সানা খান মঞ্চ ছাড়ার পর আলো নিভে গেল। উঠবেন নোবেল। কিন্তু কোথায় তিনি? এক মিনিট দুই মিনিট, তিন মিনিট চলে যায়। দর্শক-শ্রোতার অপেক্ষার প্রহর যেন শেষ হতে চায় না। মিনিট পাঁচেক কেটে যাওয়ার পর গণমাধ্যমকর্মীর পরিচয়ের বদৌলতে জানা গেল নোবেল গ্রিন রুমে বসে রয়েছেন। সেখান থেকে বারবার মঞ্চে ওয়াকিটকি যোগে যোগাযোগ চলছে-মঞ্চ প্রস্তুত কি না, 'বারবার ভেসে আসছে দায়িত্বরতদের ওয়াকিটকিতে না মঞ্চ প্রস্তুত না, আরেকটু সময় লাগবে।' এভাবেই কেটে গেল প্রায় বিশ মিনিট।

অবশেষে নোবেল মঞ্চে উঠলেন। বললেন, 'আমার গানের শুরু আইয়ুব বাচ্চু স্যারের গান দিয়ে। আজও উনার গান দিয়েই শুরু করতে পারি।' এরপর নোবেল গাইলেন এলআরবি ব্যান্ডের সবচেয়ে জনপ্রিয় গান 'সেই তুমি।'  'সেই তুমি কেন  এতো অচেনা হলে, সেই আমি কেন তোমাকে দুঃখ দিলেম... গানের সঙ্গে সঙ্গে যেন বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির নবরাত্রী হল ছন্দে দুলছে। নোবেলের কণ্ঠে বাইয়ুব বাচ্চুর এই গান সকল শ্রোতা-দর্শকদের যেন এক বিন্দুতে মিলিত করে একটি নির্দিষ্ট কম্পমান ছন্দ ও শব্দের সৃষ্টি করল।

সবার কণ্ঠ মিলে যাচ্ছে এক জায়গায়, সবার দুলুনি একই মাত্রায়... সে এক অন্য রকম আবহ... যেন বহু আকাঙ্ক্ষিত, আর তৃষ্ণার পর বৃষ্টি পড়ছে জমিনে। কেননা এভাবে ঢাকায় এর আগে কখেনা নোবেল গাননি, তার আগেই কলকাতার জি বাংলা চ্যানেলের সারেগামাপা'র কল্যাণে দুই বাংলায় জনপ্রিয়তার ঢেউ তৈরি করে ফেলেছেন। আর সেই ঢেউয়ের খানিক ছোঁয়া যখন নবরাত্রী হলে এসে পড়বে স্বাভাবিকভাবেই একটা দুলুনি উঠবেই।

গানের শেষ সুরটুকু পৌঁছল আইয়ুব বাচ্চুর প্রতিচ্ছবিতে। মঞ্চের পেছনে বিশাল স্ক্রিন। সেই স্ক্রিনে ভেসে আছে প্রয়াত আইয়ুব বাচ্চুর ছবি। গানের শেষ সুরটুকুর সময় নোবেল ঘুরে গেলেন সেই ছবির দিকে। তাকালেন একহাত দিয়ে টুপি খুলে মাথা অবনত করলেন। শ্রদ্ধা জানালেন, কৃতজ্ঞতা জানালেন বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের অন্যতম পুরোধা আইয়ুব বাচ্চুকে।

সানা খানের আগে তাসনিম আনিকা দর্শক-শ্রোতাদের মাতালেন ভিন্ন ভিন্ন গানে। নিজের মৌলিক গান ছাড়াও ইটস মাই লাইফ, সামার অফ সিক্সটি নাইনসহ বেশকিছু জনপ্রিয় গান দিয়ে উপস্থিতিদের নজর কাড়েন, জয় করেন মন। বলিউডের গায়ক অঙ্কিত তিওয়ারির গাওয়ার কথা ছিল এই কনসার্টে। কিন্তু তিনি দুইবার ফ্লাইট মিস করেছেন, যার কারণে অবশ্য কর্তৃপক্ষ দুঃখও প্রকাশ করেছেন।

জমকালো মিউজিক্যাল ইভেন্টের যৌথভাবে আয়োজন করে এটিএন ইভেন্টস ও সানগ্লো এন্টারটেইমেন্ট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা