kalerkantho

শনিবার । ২৪ আগস্ট ২০১৯। ৯ ভাদ্র ১৪২৬। ২২ জিলহজ ১৪৪০

'ডক্টর অফ লেটারস' পেলেন শাহরুখ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুলাই, ২০১৯ ১৭:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



 'ডক্টর অফ লেটারস' পেলেন শাহরুখ

সামাজিক হিতকর কাজের জন্য এর আগে লন্ডনের এডিনবার্গ ও বেডফোর্ডশায়ার বিশ্ববিদ্যালয় এবং লন্ডন ইউনিভার্সিটি অফ ল-এর তরফে বিশেষ সাম্মানিক প্রদান করা হয়েছে শাহরুখকে। এবার সেই একই কারণেই অস্ট্রেলিয়া লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফেও সাম্মানিক ডক্টরেট পেতে চলেছেন শাহরুখ খান। বিভিন্ন সমাজসেবা মূলক কাজে সবসময়ই এগিয়ে এসেছেন কিং খান। এক্ষেত্রে তাঁর 'মীর ফাউন্ডেশন'-বিশেষ অবদান রয়েছে। সেই কারণেই তাঁকে সাম্মানিক 'ডক্টরেট' দিতে চলেছে অস্ট্রেলিয়ার লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়।

লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানানো হয়। কিছুদিন পরেই ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ মেলবোর্ন(IFFM) উপলক্ষে অস্ট্রেলিয়া পাড়ি দিচ্ছেন কিং খান। সেই সময়েই 'ডক্টর অফ লেটারস' উপাধিতে ভূষিত করা হবে তাঁকে।

 মূলত অ্যাসিড আক্রান্ত নারীদের সাহায্যের জন্যই এই প্রতিষ্ঠান খুলেছিলেন শাহরুখ। নিজের বাবার নামে সংস্থার নাম রেখেছিলেন 'মীর ফাউন্ডেশন'। প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য সমাজের গোড়ায় পরিবর্তন ঘটানো। সামাজিকভাবে বঞ্চিত এবং অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলাদের চিকিৎসা, তাঁদের আইনি লড়াইয়ের ব্যবস্থা, থাকার বন্দোবস্ত সব ক্ষেত্রেই সাহায্য করে শাহরুখের এই সংগঠন। শুধু তাই নয়, সারা দেশে বিভিন্ন হাসপাতালে দরিদ্র মহিলা ও শিশুদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, স্বাস্থ্য শিবির, ছবি দেখার বন্দোবস্ত করাও এই প্রতিষ্ঠানের কাজের মধ্যেই পড়ে।  

প্রসঙ্গত অস্ট্রেলিয়ার লা ট্রোব একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে হিন্দি ভাষা ও সিনেমা নিয়ে পড়ানো হয়। গত আট বছর ধরে ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করছে এই ইউনিভার্সিটি। অমিতাভ বচ্চন, বিদ্যা বালান, রাজকুমার হিরানি সহ বলিউডের বহু অভিনেতাই এসেছেন ফেস্টিভ্যালে।

লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে তাঁকে এই সম্মান প্রদানের জন্য গর্বিত শাহরুখ বলেন, আমি সত্যিই অভিভূত। লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়কে ধন্যবাদ আমার কাজকে সম্মান জানানোর জন্য।" আগামী ৯ আগস্ট লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালেয়ের মেলবোর্ন ক্যাম্পাসে সাম্মানিক ডক্টরেট উপাধি দেওয়া হবে বাদশাকে।

প্রসঙ্গত, গত ৫ এপ্রিল লন্ডন ইউনিভার্সিটি অফ ল-এর তরফে মানবপ্রীতিতে ডক্টরেট উপাধি দেওয়া হয় কিং খানকে। তার আগে লন্ডনের এডিনবার্গ ও বেডফোর্ডশায়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকেও সাম্মানিক ডক্টরেট পেয়েছেন তিনি। জিনিউজ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা