kalerkantho

বুধবার । ২৪ জুলাই ২০১৯। ৯ শ্রাবণ ১৪২৬। ২০ জিলকদ ১৪৪০

বায়োপিকে এবার সমকামী অ্যাথলেট দ্যুতি চাঁদ, চরিত্রায়ণে চান কঙ্গনাকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ জুন, ২০১৯ ১৮:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বায়োপিকে এবার সমকামী অ্যাথলেট দ্যুতি চাঁদ, চরিত্রায়ণে চান কঙ্গনাকে

বলিউডে চলছে বায়োপিকের উৎসব। বিশেষ করে বলতে গেলে, ক্রীড়াজগতের ব্যক্তিত্বদের বায়োপিক। এই উৎসবের শুরুটা হয়েছিল ছয়ের দশকের ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ান তিগমাংশু ধুলিয়ার বায়োপিক 'পান সিং তোমার' দিয়ে। আর সেটা নির্মাণ করা হয়েছিলো ২০১২ সালের দিকে। ওই বায়োপিকের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ইরফান খান। তারপর এসেছে অ্যাথলেট মিলখা সিং (ভাগ মিলখা ভাগ), বিশ্বজয়ী অলিম্পিক বক্সার মেরি কম (মেরি কম), ক্রিকেটার মোহম্মাদ আজহারউদ্দিন (আজহার), বুধিয়া সিং (বুধিয়া সিং: বর্ন টু রান), গীতা ফোগট (দঙ্গল) এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির (এম. এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি) বায়োপিক। 

প্রায় প্রতিটাই অসামান্য সাফল্য পেয়েছে বক্স অফিসে। এবার ভারতের স্প্রিন্ট কুইন দ্যুতি চাঁদের জীবন নিয়ে আরো একটি বায়োপিক তৈরি হতে পারে বলে খবর পাওয়া গেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে।
 
এই বিষয়ে একটি সাক্ষাৎকারে দ্যুতি বলেন, জীবনে অনেক কিছু দেখেছি। অনেক পরিশ্রম করেছি। নিজের দক্ষতায় পদক এনেছি দেশের জন্য। অনেক পরিচালকের কাছ থেকে বায়োপিকের প্রস্তাব পাচ্ছি। কিন্তু, এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিইনি। অনিল কাপুর ও রাকেশ মেহরা ছাড়াও অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও আমার কাছে এসেছেন এই প্রস্তাব নিয়ে। তথ্যচিত্রের প্রস্তাবও পেয়েছি। এত প্রস্তাব দেখে মনে হচ্ছে আমার গল্পটা বেশ ভালই হবে।

কিন্তু নায়িকা নির্বাচনে অনেকটা ধোঁয়াশায় রয়েছেন দ্যুতি। প্রিয়াঙ্কা চোপড়়া ও কঙ্গনা রানাওয়াতের মধ্যে কাকে তার বায়োপিকে মানাবে, সেই বিষয়ে সন্দিহান তিনি। 

দ্যুতি জানান, ভাগ মিলখা ভাগ, দঙ্গল, মেরি কম ছবিগুলো দেখেছি। মেরি কমে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া অসাধারণ অভিনয় করেছিলেন। জানি না, শেষ পর্যন্ত কে নির্বাচিত হবেন, তবে আমার মনে হয় কঙ্গনা আমার চরিত্রটা ভাল ফুটিয়ে তুলতে পারবেন। অভিনেত্রী হিসেবে ওনাকে বেশ ভাল লাগে আমার। যদিও অভিনেত্রী নির্বাচন করবেন পরিচালক ও প্রযোজকরা।

দ্যুতির থেকে প্রশংসা পেয়ে খুশি কঙ্গনা। তিনি বলেন, দ্যুতির এই মন্তব্যে আমি খুবই খুশি। শুধুমাত্র ব্যক্তিগত জীবন নয়, কর্মক্ষেত্রেও যে সাহস ও শক্তির পরিচয় তিনি দিয়েছেন, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। আমি কৃতজ্ঞ, তিনি আমাকে যোগ্য মনে করেছেন।

প্রসঙ্গত, দ্যুতি চাঁদ প্রথম ভারতীয় মহিলা ক্রীড়াবিদ যিনি নিজের সমকামী সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি জানান, তার গ্রামের ১৯ বছর বয়সী একজন মহিলার সঙ্গে বিগত পাঁচ বছর ধরে সম্পর্ক রয়েছে।

সূত্র: জিনিউজ

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা