kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনায় মর্মাহত, ক্ষুব্ধ টালিউড তারকারা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ মে, ২০১৯ ২২:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনায় মর্মাহত, ক্ষুব্ধ টালিউড তারকারা

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর রোড শো ঘিরে উত্তেজনার মাঝে হামলা চলে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদ্যাসাগর কলেজে। ভাঙচুর করা হয় দু’শ বছরের পুরনো বিদ্যাসাগরের ঐতিহ্যবাহী মূর্তি। আর এই ঘটনায় তোলপাড় সারা ভারত। 

এই ঘটনায় একে অপরের দিকে আঙুল তুলতে ব্যস্ত তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি। এদিকে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় নিন্দায় সরব হয়েছে বিভিন্ন মহল। বসে নেই টালিগঞ্জের তারকারাও। পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়, রাজ চক্রবর্তী, সৌকর্য ঘোষাল থেকে শুরু করে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, দেবসহ অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। 

প্রতিবাদ জানিয়ে রাজ চক্রবর্তী টুইটারে লিখেন, ‘ বিদ্যাসাগরের মূর্তি যারা ভাঙচুর করেছে তাদের বাংলায় বসবাস করার কোনো অধিকার নেই। 

টুইটারে সৃজিত মুখোপাধ্যায় বিদ্যাসাগরেকে চিনে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। 

ঘটনার প্রতিবাদে ফেসবুকে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পরিচালক সৌকর্য ঘোষালও। তিনি লিখেন, ‘বিদ্যাসাগর সমাজশিক্ষার মাথা। তা উপড়ে না নিলে রাজনীতি জমবে কেন?’

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা ঋদ্ধি সেন। তিনি লিখেন, ‘এইটা খুব ভালো কাজ। তাই চলো দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় আক্রমণ করি।’ সেই সাথে সৌকর্য ঘোষালের পোস্টটিও শেয়ার করেছেন ঋদ্ধি।

ঘটনার প্রতিবাদে সামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পরিচালক তথা সাংবাদিক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়। তিনি লিখেন, ‘হ্যাঁ, আমি এটার কথাই বলে ছিলাম। এরা আমাদের বর্ণপরিচয়ে হাত দেবে। প্রতিরোধ করুন।’

অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় নিজে টুইটারে কিছু না লিখলেও পরিচালক রামকমল মুখোপাধ্যায়ের একটি টুইট শেয়ার করেছেন। টুইটারের বিদ্যাসাগরের ছবির পাশে দাঁড়ানো এক ছেলের একটি ছবি পোস্ট করে রামকমল লিখেন, ‘ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, বর্ণপরিচয়... এবং রিয়ান। আমি জানতাম না এই ছবি আজকের দিনের সাথে মিলে যাবে।’

টুইটারের প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেবও। তিনি লিখেন, ‘আমাদের বর্ণপরিচয়, আমাদের উচ্চারণ, আমাদের ভাষা, আমাদের অস্তিত্ব আক্রান্ত। আমরা বাঁচতে চাই আমাদের ভাষা নিয়ে, বাঁচতে চাই আমাদের বর্ণ পরিচয় নিয়ে। আমাদের বাংলা বিদ্বেষের বাংলা নয়। আমাদের বাংলা রামমোহন রবীন্দ্রনাথ বিদ্যাসাগরের বাংলা।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা