kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে যাওয়া দীপিকা যা বললেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মে, ২০১৯ ১২:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে যাওয়া দীপিকা যা বললেন

নিজেকে আরসিবি গার্ল বলে থাকেন। ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টেও একই পরিচিতি তাঁর। কিন্তু, এর থেকে আলাদা করে আর কোনও পরিচয় চান না তিনি। সম্প্রতি একটি খোলা চিঠিতে জানিয়ে দিলেন রাতারাতি বিখ্যাত হওয়া দীপিকা ঘোষ।

তিনি বলিউডের কেউ নন। কিন্তু, সাদৃশ্য একটা জায়গাতেই। তাঁরও নাম দীপিকা। রয়েল চ্যালেঞ্জার বেঙ্গালুরুর খেলা দেখতে গিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত হন এই নারী। কিন্তু, এই জনপ্রিয়তায় কতটা খুশি তিনি? সেকথা নিজেই সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন। দীপিকা লেখেন, 'আমার নাম দীপিকা ঘোষ। এটাই বোধহয় ১০০ শতাংশ সঠিক তথ্য আমার বিষয়। সবকিছু শুরু একটা শনিবারে, যেদিন আরসিবি-র ম্য়াচ ছিল। বহুবছর ধরে আরসিবির-র ম্য়াচ ছিল। পারিবারিক রীতিতে পৌঁছে গেছে।...আমি কোনও সেলিব্রিটি নই, একজন সাধারণ মেয়ে যে ম্য়াচটা এনজয় করছিল। এবং আমি জানতামও না যে ক্যামেরা আমাকে ফলো করছে বা টিভিতে আমাকে দেখাচ্ছে। আমি গর্বিত কারণ আমি একজন কঠোর পরিশ্রমী।'

দীপিকা আরও জানিয়েছেন, এই জনপ্রিয়তার তাঁর কোনও প্রয়োজন নেই। এবং তিনি এই ধরনের অ্যাটেনশন পছন্দও করেন না। পাশাপাশি তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য যে এই রাতারাতি জনপ্রিয়তা পাওয়াতে তাঁর জীবন একটুও বদলায়নি। সোশাল মিডিয়ার নতুন এই সেনশনের কথায়, এই ঘটনার পর রাতারাতি তাঁর পরিচয় চুরি হয়ে গেছে। 

সোশাল মিডিয়ায় কিছু মানুষের অশালীন মন্তব্য তাঁকে প্রভাবিত করছে। অবসাদেও ভুগছেন এরজন্য।রাতারাতি জনপ্রিয় হওয়ার পর দীপিকার ফেক অ্যাকাউন্টও তৈরি হয়ে যায়। দীপিকার সঙ্গে অর্জুন কাপুর, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা বা আলিয়া ভাটের সঙ্গেও যোগাযোগ রয়েছে দীপিকার।

View this post on Instagram

#RCB girl forever ❤️🏏

A post shared by deepika (@deeghose) on

মন্তব্য