kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

অভিনয় ছেড়ে দিলেন, বিয়ে করে প্রবাসী ইমু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ১৫:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অভিনয় ছেড়ে দিলেন, বিয়ে করে প্রবাসী ইমু

প্রথম চলচ্চিত্রেই শাকিব খানের বিপরীতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে হঠাৎ করেই আলোচনায় উঠে আসেন। ছবির নাম জানে মন তুই জীবন’। কিন্তু কয়েকদিন গড়াতেই সিদ্ধান্ত নেন ছবিটি করবেন না। কেন এ সিদ্ধান্ত তিনি পরিস্কার করে বলেননি। কিন্তু সংবাদমাধ্যমে দেয়া বক্তব্যে তার ক্ষোভ প্রকাশ পায়। আবার অন্যপক্ষ বলছিল তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

গোপন সংকেত’ ছবিতে কাজ করেছেন এ নায়িকা। তার বিপরীতে জুটি হয়েছেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। এটিই অভিষেক চলচ্চিত্র ছিল নায়িকার। এরপরেও বেশকিছু চলচ্চিত্রে কাজ করছেন সোনা যায়। কিন্তু বছরখানেক ধরে উধাও হয়ে যান আলভিরা ইমু। সম্প্রতি খোঁজ পাওয়া গেল, ইতালি চলে গেছেন এই নায়িকা। বাস করছেন দেশটির ভেনিস শহরে।

শুধু তাই নয়, নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায় এক শিশুর হাত ধরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। ঘটনা জানার জন্য ইতালিতে অবস্থান করা ইমুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। কয়েকদিন ব্যবধানে তিনি বিষয়টি পরিস্কার করেন। ইমু জানান, বিয়ে করেছেন আরো দুই বছরের বেশি সময় আগে। স্বামীর নাম খোরশেদ আলম রতন। বিয়ের কিছুদিন পরেই ইমু-রতনের পরিবারে আসে নতুন সদস্য।

বিয়ের বিষয়টি গোপন রেখেই চলচ্চিত্রে আসেন ইমু। কিন্তু অভিনয় ক্যারিয়ার দীর্ঘ না করেই হুট করে নিজেকে গুটিয়ে নেন। ইমু মোবাইলফোনে কালের কণ্ঠকে বলেন, রতন ইতালি প্রবাসী। কিছুদিন আগে সিদ্ধান্ত নেই অস্ট্রেলিয়ায় চলে আসবো। সেই সিদ্ধান্ত মোতাবেক চলে আসি এখানে। বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি সঙ্গত কারণেই আমাকে গোপন রাখতে হয়েছিল।'

অভিনয়ে ফিরবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে আলভিরা ইমু বলেন, 'আমার স্বামী ইতালির নাগরিক। সে ১০ বছর ধরে এখানে আছে। ভেনিসে একটা ইতালিয়ান কম্পানিতে চাকরি করেন। স্বাভাবিকভাবেই আমার আর স্থায়ীভাবে দেশে ফেরা হবে না। শখের বশে হয়তো দ'একটা নাটকে কাজ করতে যেতে পারি।'  

মন্তব্য