kalerkantho

শুটিংয়ে নায়িকাদের হয়রানি ঠেকাতে উদ্যোগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৯ ১১:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শুটিংয়ে নায়িকাদের হয়রানি ঠেকাতে উদ্যোগ

বেশ কয়েকমাস ধরেই #MeToo ঝড়ে বেসামাল বলিউড। কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন হঅনেক অভিনেতা, অভিনেত্রী। বি-টাউনে #MeToo ঝড়ে নাম জড়িয়েছে একাধিক পরিচালক, প্রযোজক থেকে শুরু করে বেশ কয়েকজন অভিনেতারও। যে তালিকায় রয়েছেন আলোক নাথ, নানা পাটেকর, অনু মালিক, রজত কাপুর, সাজিদ খান, বিকাশ বেহল, কৈলাস খের, বিবেক অগ্নিহোত্রীর, এমনকি উঠে এসেছে রাজকুমার হিরানির নামও।

তবে #MeToo বিতর্ক এড়াতেই এবার বিশেষ পদক্ষেপ করলেন পরিচালক রামকমল মুখোপাধ্যায় ও প্রযোজক অরিত্র দাস। তাঁদের আগামী ছবি 'সিজন গ্রিটিংস'-এর শ্যুটিংয়ে 'ইন্টিমেসি সুপারভাইজার' নিয়োগ করেছেন তাঁরা। 'ইন্টিমেসি সুপারভাইজার' নিয়োগের প্রথা হলিউডে আগে থেকেই রয়েছে। তবে বলিউডে এই প্রথমবার এমন পদক্ষেপ করা হলো। 

শ্য়ুটিং চলাকালীন চুম্বন, আলিঙ্গন থেকে শুরু করে বিভিন্ন ঘনিষ্ঠ দৃশ্য়ে অভিনয়ের সময় অভিনেত্রীরা কখনও অস্বস্তি বোধ করতেই পারেন। এমনকি শ্য়ুটিংয়ের সময় পরিচালকের কোনও ব্য়বহারেও সমস্য়া তৈরি হতে পারে। যা ভবিষ্যতে #MeToo-র আকার নিতে পারে। এই বিষয়টি যাতে না ঘটে, সেকারণেই শ্যুটিং ফ্লোরে এই 'ইন্টিমেসি সুপারভাইজার' রাখা হয়ে থাকে। যিনি শ্যুটিংয়ের সময় গোটা ঘটনার ওপর নজরদারি চালাবেন। কারোর কোনও বিষয়ে কোনও আপত্তি রয়েছে কিনা সেবিষয়টি খেয়াল রাখবেন।

প্রসঙ্গত, পরিচালক রামকমল মুখোপাধ্যায়ের 'সিজন গ্রিটিংস' ছবির হাত ধরেই ফের বলিউডে ফিরছেন অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি। 'সিজন গ্রিটিংস' ছবির গল্প একটি মা ও মেয়ের উপর আধারিত। যেখানে মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন সেলিনা জেটলি আর তাঁর মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে অভিনেত্রী লিলেট দুবেকে। অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি বরাবরই ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ের বিষয়ে ভীষণই খুঁত খুঁতে। আর এই ছবিতে আজহারের সঙ্গে সেলিনার একটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্য রয়েছে। এক্ষেত্রে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুটিং কীভাবে হবে সেবিষয়টি কোরিওগ্রাফার প্রভাতেন্দু মণ্ডলের সঙ্গে আলোচনার পর পরিচালক রামকমল মুখোপাধ্যায় নিজেই সেলিনার সঙ্গে আলোচনা করেন বলে জানান অভিনেত্রী। 

পরিচালক জানান, এক সাংবাদিকের কাছ থেকেই তিনি প্রথম 'ইন্টিমেসি সুপারভাইজার' নিয়োগের আইডিয়া পান। আর এরপরই প্রযোজকদের সঙ্গে আলোচনার পর 'ইন্টিমেসি সুপারভাইজার' নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেন পরিচালক। জিনিউজ

মন্তব্য