kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৪ অক্টোবর ২০১৯। ৮ কাতির্ক ১৪২৬। ২৪ সফর ১৪৪১       

দোয়া চাইলেন ওমর সানী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ জানুয়ারি, ২০১৯ ১১:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দোয়া চাইলেন ওমর সানী

ক'দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে মৌসুমীর মনোনয়ন ফরম কেনা নিয়ে তুমুল বিতর্ক চলছে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবায়দা রহমানের উপস্থিতিতে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংসদের (জাসাস) একটি অনুষ্ঠানে হাস্যোজ্জ্বল অবস্থায় দেখা যায় মৌসুমীকে- এমন একটি স্টিল ছবিকে ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। শোবিজের অনেকেই বলছেন মৌসুমী জাসাসের সদস্য ছিলেন। তবে স্বামী ওমর সানী সে দাবি উড়িয়ে দিয়ে চ্যালেঞ্জ করে বসেছেন। 

ওমর সানী কালের কণ্ঠকে বলেন, 'মৌসুমী জাসাসের প্রোগ্রামে গিয়েছিল। রাষ্ট্র ক্ষমতায় বিএনপি ছিল, জাসাসের আমন্ত্রণে গিয়ে দেখে সেখানে তারেক রহমান। কিন্তু কোনো আমন্ত্রণে যাওয়া মানেই কিন্তু সেই দলের সদস্য হয়ে যাওয়া নয়। আমি চ্যালেঞ্জ করলাম পৃথিবীর কেউ যদি প্রমাণ করতে পারে মৌসুমী জাসাস করতো তাহলে আমি প্রকাশ্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে সকলের কাছে হাতজোর মাফ চাইবো।’

ওমর সানী বলেন, 'যদি সেই অর্থে সদস্য বলেন, তাহলে রিয়াজ, পূর্ণিমা, অমিত হাসান, মিশা সবাই জাসাস করতো; আপনাদের সাংবাদিকদের হিসেব অনুযায়ী এটাই তো হয়, তাই না? রাষ্ট্রক্ষমতায় যারা থাকে তাদের কিছু কিছু বিষয় উপেক্ষা করা যায় না। এটা দৃষ্টিকটূ, ধৃষ্টতা। আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ছবি রয়েছে। অনেক তারকার ছবি রয়েছে। আল্লাহ না-চাক কোনোদিন যদি অন্য সরকার আসে, সেই সময় একটা শ্রেণি এইসব ছবি নিয়ে ফায়দা নেওয়ার চেষ্টা করবে। মৌসুমী জাসাস করেনি, তার কোথাও কোনো স্বাক্ষর কিংবা নাম দেখাতে পারবে না, এটা আমি চ্যালেঞ্জ করলাম। সকল সাংবাদিকদের চ্যালেঞ্জ করলাম, পারলে আপনারা নাম দেখান।'

তবে মৌসুমীর ওই ছবি ছাড়া আর কোনো উপাত্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় পাওয়া যায়নি এমনকী ওমর সানীর চ্যালেঞ্জের জবাবও কেউ দেয়নি। 

এদিকে, স্বামী ওমর সানীকে নিয়ে মৌসুমী মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। এসময় সকলের নিকট দোয়া চেয়ে ওমর সানী বলেন, 'আপনাদের সবার দোয়ায় ও ভালোবাসায় মৌসুমীর জন্য নমিনেশন ফরম জমা দিলাম। বেস্ট অব লাক মৌসুমী। আপনারা দোয়া করবেন।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা