kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

নবম-দশম শ্রেণি

পদার্থবিজ্ঞান

মো. মিকাইল ইসলাম নিয়ন, সহকারী শিক্ষক, ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গা সদর, চুয়াডাঙ্গা

২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সপ্তম অধ্যায়

(তরঙ্গ ও শব্দ)

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

১। তরঙ্গ কাকে বলে?

উত্তর : যে পর্যাবৃত্ত আন্দোলনের ফলে মাধ্যমের এক স্থান থেকে আরেক স্থানে শক্তির স্থানান্তর ঘটে, কিন্তু মাধ্যমের কণাগুলোর স্থায়ীভাবে কোনো স্থানান্তর ঘটে না, তাকে তরঙ্গ বলে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়—পানির তরঙ্গ, শব্দ তরঙ্গ, বেতার তরঙ্গ ইত্যাদি।

২। যান্ত্রিক তরঙ্গ কাকে বলে?

উত্তর : যে তরঙ্গ সঞ্চালনের জন্য স্থিতিস্থাপক মাধ্যমের প্রয়োজন হয় তাকে যান্ত্রিক তরঙ্গ বলে। অর্থাৎ কোনো বস্তু মাধ্যমে যে তরঙ্গের উৎপত্তি ঘটে এবং নিরবচ্ছিন্ন বস্তু মাধ্যম ছাড়া যে তরঙ্গের সঞ্চালন সম্ভব নয়, তাকে যান্ত্রিক তরঙ্গ বলে। উদাহরণ : শব্দ তরঙ্গ, পানিতে সৃষ্ট তরঙ্গ ইত্যাদি।

৩। তড়িৎ চৌম্বকীয় তরঙ্গ কী?

উত্তর : কোনো বস্তু মাধ্যমের সাহায্য ছাড়াই যে তরঙ্গের অস্তিত্ব্ব ও সঞ্চালন ঘটে তাকে তড়িৎ চৌম্বকীয় তরঙ্গ বলে। উদাহরণ—আলোক তরঙ্গ, রেডিও ও টেলিভিশন তরঙ্গ, এক্স-রে, রাডার তরঙ্গ ইত্যাদি। 

৪। তরঙ্গ কত প্রকার ও কী কী?

উত্তর : তরঙ্গ দুই প্রকার। যথা—(১) আড় তরঙ্গ বা অনুপ্রস্থ তরঙ্গ, (২) লম্বিক তরঙ্গ বা অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গ।

৫। অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গ কী?

উত্তর : যে তরঙ্গ মাধ্যমের কণাগুলোর স্পন্দনের দিকের সঙ্গে সমান্তরালে অগ্রসর হয়, সেই তরঙ্গকে অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গ বলে। বায়ু বা গ্যাস মাধ্যমে সৃষ্ট শব্দ তরঙ্গ অনুদৈর্ঘ্য তরঙ্গের প্রকৃষ্ট উদাহরণ।

৬। অনুপ্রস্থ তরঙ্গ কী?

উত্তর : যে তরঙ্গ মাধ্যমের কণাগুলোর স্পন্দনের দিকের সঙ্গে সমকোণে অগ্রসর হয়, সেই তরঙ্গকে অনুপ্রস্থ তরঙ্গ বলে। উদাহরণ-পানি তরঙ্গ।

৭। শব্দ কী?

উত্তর : আমরা যা শুনি তাই শব্দ। অর্থাৎ যা আমাদের কানে শ্রবণের অনুভূতি জাগায়, তাই শব্দ।

৮। পর্যাবৃত্ত গতি কাকে বলে?

উত্তর : কোনো গতিশীল বস্তুকণার গতি যদি এমন হয় যে এটি এর গতিপথের কোনো নির্দিষ্ট বিন্দুকে নির্দিষ্ট সময় পরপর একই দিক থেকে অতিক্রম করে, তবে সেই গতিকে পর্যাবৃত্ত গতি বলে। যেমন—ঘড়ির কাঁটার গতি, ফ্যানের পাখার গতি।

৯। স্পন্দন গতি কী?

উত্তর : যদি কোনো পর্যাবৃত্ত গতিসম্পন্ন বস্তু পর্যায়কালের অর্ধেক সময় কোনো নির্দিষ্ট দিকে এবং বাকি অর্ধেক সময় পূর্বগতির বিপরীত দিকে চলে, তবে এর গতিকে স্পন্দন গতি বলে। যেমন—পেন্ডুলামের গতি।

১০। সরল ছন্দিত স্পন্দন কাকে বলে?

উত্তর : যদি কোনো পর্যাবৃত্ত গতিসম্পন্ন কণার গতিপথ সরল রৈখিক হয় এবং এর ত্বরণ সাম্যাবস্থান থেকে এর সরণের সমানুপাতিক হয় এবং এর দিক সব সময় সাম্যাবস্থান অভিমুখী হয়, তাহলে বস্তুকণার ওই গতিকে সরল ছন্দিত স্পন্দন বলে। যেমন—কম্পমান সুরশলাকার গতি।

১১। দশা কাকে বলে?

উত্তর : তরঙ্গ সঞ্চালনকারী কোনো কণার যেকোনো মুহূর্তের গতির সম্যক অবস্থানকে তার দশা বলে।

১২। বিস্তার কাকে বলে?

উত্তর : তরঙ্গ সঞ্চালনকারী কোনো কণা সাম্যাবস্থান থেকে যেকোনো একদিকে সর্বাধিক যে দূরত্ব অতিক্রম করে তাকে তরঙ্গের বিস্তার বলে।

১৩। তরঙ্গ বেগ কী?

উত্তর : নির্দিষ্ট দিকে তরঙ্গ একক সময়ে যে দূরত্ব অতিক্রম করে তাকে তরঙ্গ বেগ বলে।

১৪। কম্পাঙ্ক কাকে বলে?

উত্তর : তরঙ্গ কণার প্রতি সেকেন্ডে যতগুলো পূর্ণ স্পন্দন সৃষ্টি হয় তাকে তরঙ্গের কম্পাঙ্ক বলে।

১৫। তরঙ্গদৈর্ঘ্য কাকে বলে?

উত্তর : তরঙ্গ সঞ্চালনকারী কোনো কম্পনশীল কণার একটি পূর্ণ কম্পন সম্পন্ন হতে যে সময় লাগে সেই সময়ে তরঙ্গ যে দূরত্ব অতিক্রম করে তাকে তরঙ্গদৈর্ঘ্য বলে।

১৬। পর্যায়কালের সংজ্ঞা দাও।

উত্তর : তরঙ্গ সৃষ্টিকারী কম্পনশীল কোনো কণার একটি পূর্ণ স্পন্দন সম্পন্ন করতে যে সময় লাগে তাকে ওই তরঙ্গের পর্যায়কাল বলে। পর্যায়কালকে ঞ দ্বারা সূচিত করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা