kalerkantho

নিজে বানাই

বৈশাখী টিপ

কিশোরী থেকে তরুণী, বৈশাখী বাঙালি সাজে টিপ ছাড়া যেন চৌদ্দকলাই অসম্পূর্ণ। নিজে নিজে টিপ বানানোর কৌশল জানা থাকলে আর চিন্তা নেই। খুব সহজেই কপালে এনে দিতে পারো সৃজনশীলতার এক টুকরো পরশ। কিভাবে বানাবে? কয়েকজন টিপশিল্পীর সঙ্গে কথা বলে জানাচ্ছেন আফরা নাওমী

৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বৈশাখী টিপ

টিপের নকশা করছেন নওরীন। ছবি : সাজ্জাদ হোসেন

যা যা লাগবে

১.   একরঙা টিপ বা ক্যানভাস কাপড়কে পাঞ্চ মেশিন দিয়ে টিপের আকৃতিতে কেটে নিতে পারো।

২.   টিপের আঠা।

৩.   ০ সাইজ তুলি।

৪.   ফ্যাব্রিক বা অ্যাক্রিলিক রং।

 

যেভাবে বানাবে

টিপের নকশা নির্ভর করছে তোমার সৃজনশীলতার ওপর। চাইলে দোকান থেকে একরঙা কিছু টিপ কিনে এর মধ্যে একটাকে কেটেকুটে অন্যটার সঙ্গে জুড়ে দিতে পারো। কাঁচি দিয়ে দুদিক থেকে কোনা করে কেটে নিতে পারো।

টিপে নকশা করার জন্য প্লেইন টিপ কিনতে পাওয়া যাবে নিউ মার্কেট বা রাস্তার পাশের হকারদের কাছ থেকেই। রাজধানীর শাঁখারীবাজারও টিপের জন্য বিখ্যাত। কিছুটা কম দামে বিভিন্ন রঙের ও শেপের ছোট-বড় টিপ পাওয়া যাবে এখানে। প্রতি পাতা ১০-২৫ টাকা করে।

রং করার অ্যাক্রিলিক ও ফ্যাব্রিক রং পাবে নিউ মার্কেটের আর্ট সাপ্লাইয়ের দোকানগুলোতে। পুরো সেট কিনলে ২০০-৩০০ টাকা দাম পড়বে। খুচরা কিনলে প্রতি বোতল ২০-৩০ টাকা পড়বে। আর অ্যাক্রিলিক ৭৫ এম এল এর দাম পড়বে ১৩০-১৪০ টাকার মতো।

তুলি ০ সাইজের হলেই ভালো। মানে যত চিকন হবে, তত তোমার সুবিধা। অনেকে ১ নম্বর তুলিও ব্যবহার করে। এগুলোর দাম ১৫-২৫ টাকার বেশি নয়।

টিপের আঠা নিউ মার্কেটের প্রায় যেকেনো স্টেশনারি দোকানেই পাবে। বিশেষ করে গাউসিয়ার দিকে এসবের রমরমা বাণিজ্য। টিপের মধ্যে যদি বিডস বসাতে চাও, তবে এর জন্য আছে আলাদা আঠা। এটা পাবে শাঁখারীবাজারের টিপের দোকানে। প্রতি শিশির দাম ৩০-৪০ টাকা। তবে সাবধানে সুপারগ্লু দিয়েও কাজ সারতে পারো।

বিডস, কড়ি, মেটাল, বোতাম, রেণু—এসব নকশার টিপ চলছে বেশি। সবই পাওয়া যাবে নিউ মার্কেট, গাউসিয়া, শাঁখারীবাজারে।

অনলাইন শপ সারানা হ্যান্ডপেইন্টেড টিপ বিক্রি করছে অনেক দিন ধরেই। এর স্বত্বাধিকারী নওরিন আক্তার নিজেও টিপ পরতে ভীষণ ভালোবাসেন। তিনি ছোট্ট উপদেশ দিয়েছেন তুলির ব্যবহারের ওপর। তাঁর মতে, ‘তুলির ওপর দক্ষতা আনতে হবে। ছোট টিপের ক্ষেত্রে এটা খুব জরুরি। কেননা যত ছোট ক্যানভাস, তত বেশি কসরত।’

আরেক অনলাইন শপ টেম্পাসের স্বত্বাধিকারী স্বর্ণালি শাহজাহান উপমা বলেন, ‘বিভিন্ন আকৃতির টিপ কাঁচি দিয়ে কেটে জোড়া লাগিয়ে বানানো যায়। তবে রং করার ক্ষেত্রে বর্ডারের দিকে নজর দিতে হবে বেশি। বর্ডার যত নিখুঁত হবে, টিপ তত ফুটবে।’

 

মন্তব্য