kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

পড়তে পারো দেখতে পারো

১৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পড়তে পারো দেখতে পারো

হুইসপার্স

এ বছরের জানুয়ারিতে প্রকাশ হয় গ্রেগ হওয়ার্ডসের হুইসপার্স। রহস্য, জাদু, কল্পনা, অতিপ্রাকৃত শক্তি— সব কিছুর মিশেল এটি।  ১১ বছরের কিশোর রাইলি এক ঐন্দ্রজালিক মায়ার শিকার। কানের কাছে শোনে এক অদ্ভুত ফিসফিস। সে বিশ্বাস করে, এই ক্ষমতাই তার সব আশা পূরণ করবে। সে চায়, স্কুলে তাকে আর কেউ অপমান করতে পারবে না, বাবা তাকে আগের চেয়ে বেশি ভালোবাসবে, তার পছন্দের মানুষটি তাকে একটু হলেও পাত্তা দেবে। কিন্তু সবচেয়ে বেশি চায়, তার মা যেন দ্রুত ফিরে আসে। কারণ রাইলির মা গায়েব হয়েছে মাসখানেক হলো। কেউ জানে না, তিনি কোথায়। রাইলির দৃঢ়বিশ্বাস, মাকে সে খুঁজে বের করবেই। এর জন্য ফ্রাঙ্ক নামের একজন গোয়েন্দা আবার রাইলিকে সাহায্য করছে। আবার জাদুর সেই ফিসফিস শব্দটার ওপর ভরসা আছে তার।

একবার বন্ধু গ্যারির সঙ্গে ঘুরতে যায় রাইলি। ঠিক করে, ওই সময় সে তার জাদুকরী ক্ষমতাটাকে বলবে মা-কে এনে দিতে। কিন্তু তখন এমন কিছু কঠিন সত্যের মুখোমুখি হলো যে তার পুরো জগত্টাই বদলে গেল। ভেঙে পড়ল ছোট্ট রাইলি। রাইলি কি খুঁজে পাবে তার মাকে? কে এই ফিসফিস করে কথা বলা প্রাণী? রোমাঞ্চকর ইংরেজি বইটি পড়ে শেষ করলেই উদ্ঘাটন হবে যাবতীয় রহস্য।

দ্য কিড হু উড বি কিং

জোই করনিশের রচনা ও পরিচালনায় এ বছরের মুক্তিপ্রাপ্ত কিশোরোপযোগী চলচ্চিত্র ‘দ্য কিড হু উড বি কিং’। নাম শুনেই আঁচ করা যায়, কী ঘটতে যাচ্ছে এতে। বারো বছরের স্কুলপড়ুয়া লাজুক ও শান্ত প্রকৃতির এলেক্স। হঠাৎ একদিন খোঁজ পেল এক পৌরাণিক তরবারির। তাতেই তার জীবন পাল্টে গেল। কারণ তরবারিটি ছিল রাজা আর্থারের। পৌরাণিক জাদুকর মারলিনের সাক্ষাৎ পায় অ্যালেক্স। দুজনে মিলে বিশ্বের দুষ্টচক্রগুলো ভেঙে দিতে থাকে। শত্রু মর্গানার হাত থেকে বিশ্ববাসীকে উদ্ধার করার মিশনেও ঝাঁপ দেয় তারা। সিনেমাটির চমৎকার প্রিন্ট পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। তাই আরামসেই দেখতে পাবে ছোট অ্যালেক্সের রাজা হওয়ার অদ্ভুত গল্পটি।

মন্তব্য