kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

তোমাদের চিঠি

১৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



তোমাদের চিঠি

দুটি করে গল্প চাই

দলছুট-এ একটু অ্যাডভেঞ্চারধর্মী ফিচার চাই। অনেক দিন হাটে যাই বিভাগেও লেখা নাই। নতুন নতুন পণ্যের দরদাম জানতে ভালোই লাগে। অবস্থা বুঝে বিভাগটিও হুট করে দেখি গায়েব হয়ে গেল। ঢাকার বাইরে যারা আছে, তাদের জন্য আড্ডা দেওয়া বা ঘোরাঘুরির জায়গা নিয়ে মাঝে মাঝে ফিচার করা হোক। আর দলছুটে অন্তত দুটি করে গল্প চাই। টিন তারকা বিভাগটাও নিয়মিত করা হোক। শরীর ও মন বিভাগটা রীতিমতো প্রেসক্রিপশনের কাজ করে। তবে বিশেষ অনুরোধ, মাসে যেন অন্তত একটি করে হলেও ‘হরর ক্লাব’ ছাপা হয়। সারা দেশে দলছুট-এর সদস্য সংগ্রহ করা হোক এবং নতুন সদস্যদের নাম দলছুটে ছাপা হলে ভালো হয়। কমিকসটাও নিয়মিত চাই। তারকাদের ছোটবেলা নিয়ে একটি বিভাগ চালু করা যেতে পারে। আর হাফ সেঞ্চুরি করায় দলছুটকে শুভেচ্ছা।

তাহিয়া তাসনিম আনিশা, অষ্টম শ্রেণি, মাতৃপীঠ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদপুর

 

আমাদের সংবাদ চাই

আমি তোমার নতুন পাঠক, তোমাকে পড়ে বেশ মজা পেয়েছি। তোমার প্রতিটি বিভাগেই আলাদা করে কিছু শেখার মতো পাই। পাঠকের লেখা বাড়ানো উচিত বলে মনে হয়। তবে আমার একটা আবদার ছিল। শিশু-কিশোরদের বিভিন্ন সমস্যা, সম্ভাবনা ফিচার আকারে তুলে ধরা হোক, ‘আমাদের সংবাদ’ শিরোনামে। আর হ্যাঁ, আমার প্রিয় বিভাগ কিন্তু ‘টিন তারকা’।

শেখ নাসির উদ্দিন, একাদশ শ্রেণি, সৃষ্টি কলেজ একাডেমি, টাঙ্গাইল

 

প্রিয় দলছুট,

তোমার নাম শুনলেই শুরুর দিনগুলোর কথা মনে পড়ে। হঠাৎ একদিন পত্রিকা ওল্টাতেই তোমার আগমনের খবর। এরপর একদিন এলে। প্রথম দেখাতেই অবাক। দারুণ সব আয়োজন। এখন বলো, অমন শুরুর পরও কাউকে ভালো না বেসে পারা যায়? ভালোবেসে চলেছি এখনো। অনেক দূর এগিয়ে যাও। সেই ভালোবাসা থেকেই কয়েকটি কথা বলব। ‘এমন যদি হতো’ বিভাগটা প্রতি সপ্তাহেই দেখতে চাই। চাই নিয়মিত কুইজ প্রতিযোগিতা। কারণ, পাঠকের বেশি বেশি অংশগ্রহণেই তো একটা ম্যাগাজিন প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। আমার মনে হয়, কুইজ প্রতিযোগিতা ছাড়া কোনো ম্যাগাজিনই পূর্ণতা পায় না! এখন তুমি হয়তো বলে বসবে, ১৬ পৃষ্ঠায় এত কিছু সম্ভব নয়! তাই বলছি, প্রয়োজনে পৃষ্ঠা বাড়াও। আমার বিশ্বাস, এতে দলছুট আরো সুন্দর হবে।

আবদুর রহমান, পাবনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা