kalerkantho

বুধবার । ২৬ জুন ২০১৯। ১২ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

চর্মরোগবিষয়ক বাছাই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চর্ম ও যৌনরোগ বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

সমস্যা : আমার বয়স ৩৮ বছর। ওজন ৬৮ কেজি। উচ্চতা ৫ ফুট ১ ইঞ্চি। এক সপ্তাহ আগে আমার চিকুনগুনিয়া জ্বর হয়। জ্বরের তিন দিনের মাথায় মুখে, ঘাড়ে ও হাতে র‌্যাশ ওঠে। আমি স্থানীয় ডাক্তার দেখালে তিনি আমাকে ডারমাসোল-এন ক্রিম মুখে, ঘাড়ে ও হাতে লাগাতে বলেন। দু-তিন দিন লাগানোর পর পুরো মুখ, হাত ও ঘাড়ে কালো তিলের মতো দাগ হয়ে গেছে। এখন আমি কী করব?

হেলেনা আক্তার

জিগাতলা, ধানমণ্ডি, ঢাকা।

 

পরামর্শ : ডারমাসোল-এন ক্রিম কখনোই মুখে মাখার বা লাগানোর ওষুধ নয়। এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকেই এ অবস্থা হয়েছে। এর জন্য আপনি ফেক্সো (ফেনাডিন) ট্যাবলেট প্রতিদিন ১টি করে দুবার ১৫ দিন খাবেন। মুখে  হাইড্রোকটিশন ক্রিম লাগাবেন এক থেকে দুবার ১০-১৫ দিন। আশা করি, উপকৃত হবেন।

সমস্যা : আমার বয়স ২৬ বছর। ওজন ৫৫ কেজি। উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি।  আমার ঠোঁট প্রচণ্ড ফাটে আবার ভ্যাসলিন দিলে জ্বলে বলে তা ব্যবহার করতে পারি না। হাতের আঙুলের উল্টা চামড়া ওঠে, আর শরীর খুব শুষ্ক হয়ে যায়। কী করব?

হাসান রেজা

বেলাব, নরসিংদী।

 

পরামর্শ : আপনি বুঝতে পেরেছেন যে শরীর শুষ্ক হয়ে যায় বলে এই ফাটার সমস্যা তৈরি হয়। এর কারণ হলো, বাতাস শুষ্ক হলে ঠোঁটের মিউকাস মেমব্রেন থেকে পানি চলে যায়। এ জন্য ঠোঁটে লিপজেল বা ক্রিম ব্যবহার করা যেতে পারে। ভ্যাসলিন বা তেলও ব্যবহার করতে পারেন।

তবে অতিরিক্ত ফাটার সমস্যা হলে স্টেরয়েড ও অ্যান্টিবায়োটিক মলম একসঙ্গে ব্যবহার করার প্রয়োজন হতে পারে। এর পরও যদি সমস্যা থেকে যায়, তবে একজন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ দেখিয়ে চিকিৎসা নিন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা