kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযান

পচা ডিমে বেকারি পণ্য তৈরি করছে মুসলিম সুইটস!

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পচা ডিমে বেকারি পণ্য তৈরি করছে মুসলিম সুইটস!

কেক থেকে শুরু করে নানা বেকারি পণ্য তৈরির জন্য অনেক ডিম খাঁচির মধ্যে রাখা। কিন্তু ডিমগুলোর সবই ভাঙা। কোনো কোনোটা থেকে তরল অংশ চুইয়ে পড়ছে, আবার কোনোটা থেকে গন্ধ বের হচ্ছে। এই পচা, ভাঙা ডিমগুলো দিয়েই বেকারি পণ্য তৈরি হচ্ছিল মিরপুর থানাধীন পাইকপাড়া এলাকার মুসলিম সুইটসের কারখানায়।

গতকাল জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এক অভিযানে গিয়ে এই চিত্র দেখতে পায়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন অধিদপ্তরের উপপরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার এবং সহকারী পরিচালক আব্দুল জব্বার মণ্ডল।

কারখানায় দেখা গেছে, চরম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের মধ্যেই তৈরি হচ্ছে নানা খাদ্যপণ্য। যার মধ্যে ব্যবহার করা হচ্ছে পচা ডিম। এর পাশাপাশি পণ্য তৈরিতে কিছু বিদেশি উপাদান ব্যবহার করা হচ্ছিল, যেগুলোর গায়ে উৎপাদনের কোনো দিন-তারিখ নেই। এসব অপরাধে কারখানাটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য দুই দিন সময় দেওয়া হয়েছে।

এদিকে একই এলাকার অনন্ত বেকারি ও আরাফাত বেকারিতে অভিযানে গিয়ে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের ভয়াবহ চিত্র ধরা পড়েছে। যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলে রাখা, কারখানাজুড়ে দুর্গন্ধ এবং পণ্য তৈরির উপাদানে কোনো দিন-তারিখ না থাকার কারণে আরাফাত বেকারি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়েছে। অন্যদিকে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যপণ্য তৈরির অভিযোগে অনন্ত বেকারিকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের অন্য একটি অভিযানে বাড্ডা এলাকার বিভিন্ন ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, চোরাই বিদেশি কসমেটিকস ধরা পড়েছে। এর মধ্যে গুড লাইফ ফার্মেসিকে ২০ হাজার টাকা, কসমেটিকস ওয়ার্ল্ডকে পাঁচ হাজার টাকা, রনি স্টোরকে ১০ হাজার টাকা ও ঝিলিক কসমেটিকসকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা