kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

বইয়ের প্রকাশনা ও ফিল্মের প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে স্পিকার

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান

রাজধানীর লেক পার্কে সিআরপি ও গুলশান সোসাইটির উদ্যোগে ১৫ দিনব্যাপী মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন শেষে ঘুরে দেখছেন অতিথিরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি। তিনি বলেছেন, জনগণের অর্থনৈতিক মুক্তি নিশ্চিত করার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন সম্ভব।

গতকাল শনিবার দেশরত্ন শেখ হাসিনা রচিত ‘আমার পিতা শেখ মুজিব’ অবলম্বনে ‘খোকা যখন ছোট্ট ছিলেন’ গ্রাফিকস বইয়ের প্রকাশনা ও এনিমেটেড ফিল্মের প্রদর্শনী অনুষ্ঠান উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন। জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী গ্যালারিতে ওই অনুষ্ঠানের শুরুতে তিনি ফিতা কেটে গ্রাফিকস বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। ‘হাসুমণির পাঠশালা’র সভাপতি মারুফা আক্তার পপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন, অধ্যাপক জোনায়েদ হালিম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্পিকার বলেন, এই গ্রাফিকস বই ও এনিমেটেড ফিল্ম প্রদর্শনী বঙ্গবন্ধুকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে সাহায্য করবে। তাই সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুক কর্নারে এই বই ও ফিল্ম সংরক্ষণ করতে হবে। বইগুলো পড়তে শিক্ষার্থীদের আগ্রহী করে তুলতে কুইজ, বিতর্ক ও রচনা প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে হবে। তিনি নিজ নির্বাচনী এলাকা পীরগঞ্জের প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই ও এনিমেটেড ফিল্ম প্রদর্শন এবং সংসদ গ্রন্থাগারে সংরক্ষণের উদ্যোগ নেবেন বলে জানান। তিনি একই উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সব সংসদ সদস্যের প্রতি আহ্বান জানান।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা জাতির জীবনে সব সময় আসে না। তিনি ছিলেন সেই মহান নেতা, যিনি ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়েও মৃত্যুকে আলিঙ্গন করতে ভয় পাননি। আজীবন অন্যায় ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে জনগণের মুক্তির লক্ষ্যে লড়াই-সংগ্রাম করেছেন। তিনি আরো বলেন, নদী, মাটি আর কাদাজল মেখে বেড়ে ওঠা খোকা ছিলেন অদম্য সাহসী ও প্রতিবাদী। দেশের মানুষের প্রতি নিবিড় ভালোবাসা বঙ্গবন্ধুর আসন স্থায়ী করে রেখেছে প্রত্যেক বাঙালির হৃদয়ে।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশেই জাতির পিতাকে নিয়ে বিতর্ক নেই। তেমনি আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে না। এ ব্যাপারে কোনো আপস চলে না। তিনি আরো বলেন, একটি মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী সুপরিকল্পিতভাবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিব বর্ষ’ উপলক্ষে হাসুমণির পাঠশালার উদ্যোগে ‘আমার পিতা শেখ মুজিব উৎসব’ পর্যায়ক্রমে সারা দেশে আয়োজন করা হবে।

গুলশানে ১৫ দিনব্যাপী স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনী শুরু

গুলশান সোসাইটি ও সিআরপির যৌথ উদ্যোগে ১৫ দিনব্যাপী ‘ডুয়েটস ইন মেটাল অ্যান্ড ওয়াটার’ শীর্ষক স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার রাজধানীর গুলশান সোসাইটি লেক পার্কে প্রদর্শনীটির উদ্বোধন করা হয়। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য প্রদর্শনীটি উম্মুক্ত থাকবে।

অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানায়, ফেলে দেওয়া ধাতব টুকরা ও প্রাণীর সমন্বয়ে শিল্পী আরহাম আল হোসেন ভাস্কর্য তৈরি করেছেন। এসব ভাস্কর্য প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে। ভাস্কর্য বিক্রি থেকে পাওয়া অর্থ জমা হবে সিআরপির কল্যাণ তহবিলে।

স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. গওহর রিজভী, বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারসন ডিকসন, গুলশান সোসাইটির সভাপতি শাখাওয়াত আবু খায়ের মোহাম্মদ এবং মহাসচিব ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা