kalerkantho

সোমবার । ২০ মে ২০১৯। ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৪ রমজান ১৪৪০

কালের কণ্ঠে খবর প্রকাশ

হকারমুক্ত হলো মিরপুরের রূপনগর

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পূরবী সিনেমা হলের পাশ ঘেঁষে যে সড়কটি সোজা চলে গেছে রূপনগর থানা এলাকার সীমানার ভেতরে, সেই সড়কটির দুপাশে ফুটপাতজুড়ে সারিবদ্ধভাবে বসানো ছিল অস্থায়ী দোকান। কোনোটা ভ্যানে, কোনোটা টং ঘর তুলে বাসনো হয়েছিল এসব অস্থায়ী দোকান। এলাকা ভেদে কোনো কোনো দোকান বসিয়েছিল স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা, আবার কোনোটা বসিয়েছিল অসাধু কিছু পুলিশ। নিয়মিত চাঁদাবাজি করা হতো ওই সব দোকান থেকে। প্রতিদিন দোকান ভেদে নেওয়া হতো ১০০ থেকে ১৫০ টাকা। ফুটপাতে দোকান বসানোর কারণে একেবারে সরু হয়ে পড়েছিল জনসাধারণের চলাচলের পথ। ফুটপাতে দোকান বসিয়ে চাঁদাবাজির বিষয়ে কালের কণ্ঠে একাধিক প্রতিবেদন এরই মধ্যে প্রকাশিত হয়। গত ৮ এপ্রিল কালের কণ্ঠ পত্রিকায় ‘সরেজমিন ফুটপাতে চাঁদাবাজি মিরপুর স্পট-৭; পূরবী-রূপনগর থেকে চাঁদা নেন যুবলীগ নেতা ইউসুফ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর টনক নড়ে প্রশাসনের। রূপনগর থানার পুলিশ উদ্যোগ নেয় সড়কের ফুটপাত থেকে দোকান উচ্ছেদ করার।

গত দুদিনে মিরপুরের রূপনগর থানা এলাকা ঘুরে দেখা যায়, পূরবী সিনেমা হল থেকে রূপনগর এলাকার দিকে যাওয়া সড়কটির রূপনগর অংশ থেকে ফুটপাতে বসানো দোকানগুলো উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ফুটপাত থেকে দোকান উচ্ছেদের বিষয়ে জানতে চাইলে রূপনগর থানার ওসি শাহ আলম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ফুটপাতে দোকান বসানোর সুযোগ পেলে চাঁদাবাজি ঠেকানো যাবে না, তাতে সেই চাঁদাবাজি রাজনৈতিক কর্মী করুক বা পুলিশ করুক। সে জন্য রূপনগর এলাকা থেকে ফুটপাত হকারমুক্ত করেছি, সে কারণে এখন চাঁদাবাজিও নেই।’

মন্তব্য