kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

বিজিএমইএ ভবন

মালামাল সরানোর সময় দিয়ে ফের সিলগালা

মালিকপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ভবনের তালা খুলে দেয় রাজউক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মালামাল সরানোর সময় দিয়ে ফের সিলগালা

বিজিএমইএ ভবন সিলগালা করে দেওয়ার এক দিন পর মালামাল সরিয়ে নিতে গতকাল আবারও খুলে দেওয়া হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর হাতিরঝিল লেকে অবৈধভাবে নির্মিত বিজিএমইএ ভবন সিলগালা করে দেওয়ার এক দিন পর গতকাল বৃহস্পতিবার মালামাল সরিয়ে নিতে আবারও খুলে দেওয়া হয়। তবে তা ছিল আট ঘণ্টা সময়ের জন্য।

জানা যায়, মালিকপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সকাল ৯টায় ওই ভবনের তালা খুলে দেয় রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। রাজউকের প্রধান প্রকৌশলী এ এস এম রায়হানুল ফেরদৌস বলেন, আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিকেল ৫টার মধ্যে মালামাল সরিয়ে নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ ভবনটি বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় খুলে বিকেল ৫টায় বন্ধের মাঝখানে আট ঘণ্টা সময় দেওয়া হয় সংশ্লিষ্টদের।

রাজউকের পরিচালক ওয়ালিউর রহমান বলেন, ‘যারা মালামাল সরিয়ে নিতে আবারও আবেদন করেছে, তাদের জন্য আমরা আজ তালা খুলে দিয়েছি।’

এর আগে মঙ্গলবার সকাল থেকে পরিচালিত অভিযানে ভবন মালিকদের মালামাল সরিয়ে নেওয়ার জন্য কয়েক দফা সময় দেওয়ার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রধান ফটক সিলগালা করে দেওয়া হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, রাজউকের অনুমোদন ছাড়াই গড়ে ওঠা বিজিএমইএর এ ভবন পত্রিকার শিরোনাম হয় প্রায় ৯ বছর আগে। ২০১০ সালে একটি জাতীয় দৈনিকে ভবনটি নির্মাণে রাজউকের অনুমোদন না থাকার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনটি হাইকোর্টের নজরে আনা হলে ভবনটি কেন ভাঙা হবে না, তা জানতে চেয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুল জারি করেন আদালত। পরে ২০১১ সালের ৩ এপ্রিল হাইকোর্ট ভবনটি ভেঙে ফেলার রায় দেন।

মন্তব্য