kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

বৈশাখী কনসার্টে আগুন

ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠিত

গত শুক্রবার রাতে আগুন ধরিয়ে কনসার্টের সরঞ্জাম ভাঙচুর করে ছাত্রলীগের সভাপতি শোভনের অনুসারীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চৈত্রসংক্রান্তি ও বৈশাখী কনসার্টে আগুন ও ভাঙচুরের ঘটনা খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সিনিয়র সহকারী প্রক্টর ও ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ মাঈনুল করিমকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রাব্বানী কালের কণ্ঠকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। কমিটির আরেক সদস্য হলেন সহকারী প্রক্টর ও সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুর রহিম। তবে আরেক সদস্যের নাম নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

তদন্ত কমিটির বিষয়ে অধ্যাপক মাঈনুল করিম বলেন, ‘আমি পরীক্ষাসংক্রান্ত কাজে ক্যাম্পাসের বাইরে আছি। এ জন্য এখন পর্যন্ত তদন্ত কমিটির বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানি না। তবে যদি তদন্ত কমিটিতে আমাকে রেখে থাকে, তাহলে অবশ্যই আমরা ঘটনাটি খতিয়ে দেখে দোষীদের খুঁজে বের করতে পারব।’

তদন্ত কমিটির বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘চৈত্রসংক্রান্তি ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে অনুষ্ঠানকে ঘিরে একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। দ্রুত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, চৈত্রসংক্রান্তি ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে মল চত্বরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ যৌথভাবে লোকসংগীত ও কনসার্টের আয়োজন করে। তবে লোকসংগীত উৎসবের আগে গত শুক্রবার রাতে আগুন ধরিয়ে কনসার্টের সরঞ্জাম ভাঙচুর করে ছাত্রলীগের সভাপতি শোভনের অনুসারীরা। পরে এই নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে লোকসংগীত ও বৈশাখী কনসার্ট বাতিল করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য