kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

নানা রঙের আলপনায় সাজল মানিক মিয়া এভিনিউ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নানা রঙের আলপনায় সাজল মানিক মিয়া এভিনিউ

প্রতিবছরের মতো এবারও গতকাল রাতে মানিক মিয়া এভিনিউ অঙ্কিত হলো নানা রঙের আলপনায়। ছবি : কালের কণ্ঠ

নববর্ষে বাঙালি সংস্কৃতির প্রাণের স্ফুরণ দেখা যায় আলপনায়। প্রতিবছরের মতো এবারও নিকষ কালো পিচঢালা পথ অঙ্কিত হয়েছে নানা রঙের আলপনায়; যেখানে উঠে এলো আবহমান বাংলার সংস্কৃতির নানা অনুষঙ্গ। জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজার সামনে মানিক মিয়া এভিনিউয়ে বরেণ্য শিল্পীদের পাশাপাশি তরুণ চারু শিক্ষার্থী, সাধারণ মানুষ—সবাই মিলে একযোগে আঁকল দুই কিলোমিটার দীর্ঘ আলপনা। এ বর্ণিল আলপনার মাধ্যমে তারা নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছে।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বার্জার পেইন্ট বাংলাদেশের পৃষ্ঠপোষকতায় এশিয়াটিক ইএক্সপি আয়োজন করে ‘বার্জার রঙে রঙিন বৈশাখ’ শীর্ষক উৎসব। গতকাল শুক্রবার রাতে ছয় বছর ধরে চলে আসা এ উৎসবের উদ্বোধন করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বত্তৃদ্ধতা করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি, বার্জার পেইন্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রূপালী চৌধুরী, এশিয়াটিকের ইরেশ যাকের প্রমুখ।

উৎসব সামনে রেখে জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজাসংলগ্ন অংশে স্থাপন করা হয় বড় বড় এলইডি পর্দা। মাঝখানে মঞ্চ। এক পাশে ছিল আলোকচিত্র প্রদর্শনী। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে সেখানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয় অসংখ্য মানুষ। গভীর রাতে হাজার মানুষের কলকাকলিতে ভরে ওঠে ওই প্রাঙ্গণ। পথে রঙিন আলপনা অঙ্কন, এর সঙ্গে মঞ্চে গান, নৃত্য ও নাটকের আয়োজনে তৈরি হয় উৎসবমুখর পরিবেশ। সারা রাত ধরেই চলেছে এই আয়োজন। শিল্পী মুনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে চার শতাধিক শিল্পী এই আলপনায় অংশ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

উদ্বোধনী বত্তৃদ্ধতায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘বাংলা নববর্ষ বাঙালি সংস্কৃতির প্রাণের উৎস। এর মাধ্যমে আমরা পুরাতন বছরকে বিদায় দিয়ে নতুন উদ্যোগে এগিয়ে যাই। নতুন করে পথ চলার শপথ নিই।’

মন্তব্য