kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

রূপগঞ্জে গৃহবধূর লাশ গুমের চেষ্টার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে একটি মাইক্রোবাসে করে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর বানিয়ার চর এলাকায় নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে প্রিয়া বিশ্বাস নামের এক গৃহবধূকে হত্যার পর লাশ গুম করার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে। গত বৃহস্পতিবার উপজেলার দাউদপুর এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। গতকাল শনিবার সকালে নিহতের চাচা পৌল বৈদ্য রূপগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিহত প্রিয়া বিশ্বাস খুলনার সদর উপজেলার ছোট খালপার মহির বাড়ী এলাকার আশিষ বিশ্বাসের মেয়ে। তাঁর স্বামী সঞ্জয় মণ্ডল গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বানিয়ার চর গ্রামের সুকুমার মণ্ডলের ছেলে। এই দম্পতি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর এলাকায় আজাহার মোল্লার বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছিলেন

মামলার এজাহারে প্রিয়ার চাচা পৌল বৈদ্য উল্লেখ করেন, দুই বছর আগে প্রিয়া বিশ্বাসের সঙ্গে সঞ্জয় মণ্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সঞ্জয় মণ্ডল স্ত্রী প্রিয়া বিশ্বাসকে নিয়ে রূপগঞ্জে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। গত বৃহস্পতিবার কোনো এক সময় জামাতা সঞ্জয় মণ্ডল অজ্ঞাত কারণে প্রিয়া বিশ্বাসকে হত্যা করেন। পরে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে একটি মাইক্রোবাসে করে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর বানিয়ার চর এলাকায় নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। খবর পেয়ে প্রিয়ার চাচা পৌল বৈদ্যসহ পরিবারের লোকজন প্রিয়ার মৃতদেহ দেখতে যায়। তারা দেখতে পায় মৃতদেহের গলা ফোলা ও কালো দাগযুক্ত এবং নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। পরে সঞ্জয় মণ্ডলকে মৃত্যুর কারণ জিজ্ঞেস করলে তিনি অসংলগ্ন কথাবার্তা বলেন। এ ঘটনা মুকসুদপুর থানা পুলিশকে জানালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়েছে। থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য