kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

হলফনামায় তথ্য

স্নাতকোত্তর মোদি কোটিপতি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্নাতকোত্তর মোদি কোটিপতি

ভারতের নির্বাচন প্রায় শেষ পর্যায়ে উপস্থিত। আজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে শেষ পর্যায়ে অর্থাৎ সপ্তম পর্যায়ের ভোটগ্রহণ।

নির্বাচন ঘিরে উত্তেজনা তুঙ্গে। কী ফলাফল হতে চলেছে, পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে দেশ-বিদেশে আলোচনা চলছে। এই নির্বাচনে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু অবশ্যই নরেন্দ্র মোদি।

ভারতের চতুর্দশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৯ সালেও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হবেন, নাকি ক্ষমতায় উঠে আসবে অন্য কোনো মুখ? জল্পনা এ নিয়েই।

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে ১৩ বছর গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মোদি। তরুণ বয়স থেকেই আরএসএসের সঙ্গে যুক্ত। এহেন একজন হেভিওয়েট প্রার্থীর সম্পত্তির পরিমাণ কত জানেন? নির্বাচন কমিশনে সম্পত্তির যে হলফনামা জমা দিয়েছেন তিনি, সে অনুযায়ী এই মুহূর্তে তাঁর কাছে রয়েছে ৩৮ হাজার ৭৫০ টাকা নগদ। নগদ ছাড়া ব্যাংকে সেভিংস অ্যাকাউন্টে জমা রয়েছে এক কোটি ৩৯ লাখ ৮৩ হাজার ৫৬৯ টাকা।

৪৫ গ্রাম সোনার গয়না রয়েছে বলে হলফনামায় জানিয়েছেন মোদি। যার বাজারমূল্য এক লাখ ১৩ হাজার ৮০০ টাকা।

হলফনামায় স্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ নিয়ে কোনো তথ্য দেননি তিনি। ওই অংশটা ফাঁকা রেখে দিয়েছেন। কোনো রকম ঋণ নেই, কোনো গাড়ি নেই বলে হলফনামায় জানিয়েছেন তিনি। এই হলফনামা অনুযায়ী, গান্ধীনগরের সেক্টর ১-এ তাঁর একটি নিজস্ব বাড়ি রয়েছে। সব মিলিয়ে তাঁর স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ এক কোটি ১০ লাখ টাকা।

তিনি যা আয় করেন তা সরকারের থেকে প্রাপ্ত মাইনে এবং ব্যাংক আমানত থেকে প্রাপ্ত সুদ বলে হলফনামায় জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। হলফনামায় মোদি নিজেকে স্নাতকোত্তর বলে উল্লেখ করেছেন। ১৯৭৮ সালে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক হন। তারপর ১৯৮৩ সালে গুজরাট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে হলফনামায়। সূত্র : আনন্দবাজার।

মন্তব্য