kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

৯/১১-এর পর সবচেয়ে ভয়ংকর হামলাগুলোর অন্যতম

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শ্রীলঙ্কায় নৃশংস ও লাগাতার বোমা হামলার ঘটনা নানাভাবেই ২০০১ সালের সেপ্টম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। মাত্রার দিক থেকে এটি ৯/১১-এর মতো না হলেও এর পরের ভয়ংকর ঘটনাগুলোর মধ্যে অন্যতম। বিশ্বজুড়ে হওয়া তেমনই কয়েকটি উল্লেখযোগ্য সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

যুক্তরাষ্ট্র : ২০০১ সালের ১১ সেপ্টম্বর সন্ত্রাসীরা দুটি বিমান ছিনতাই করে নিউ ইয়ার্ক শহরের টুইন টাওয়ারে হামলা চালায়। একই সময় ছিনতাই করা আরেকটি বিমান ওয়াশিংটনে অবস্থিত মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পেন্টাগনে আছড়ে পড়ে। চতুর্থ বিমানটি বিধ্বস্ত হয় পেলসিলভানিয়ায়। এসব ঘটনায় সে সময় দুই হাজার ৯৭৭ জনের মৃত্যু হয়। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আল-কায়েদা সে সময় ওই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করে।

সোমালিয়া : ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে মোগাদিসুর একটি ব্যস্ততম বাণিজ্যিক এলাকায় ট্রাকবোমা হামলায় ৫১২ জন নিহত হয়। হামলার এ ঘটনায় কোনো জঙ্গি বা সন্ত্রাসী সংগঠন দায় স্বীকার না করলেও মনে করা হয়, এর পেছনে ইসলামপন্থী সংগঠন আল শাবাব জড়িত থাকতে পারে।

ইরাক : ২০০৭ সালের আগস্টে উত্তরাঞ্চলীয় নিনেভে প্রদেশে ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের দুটি গ্রামে চারটি ট্রাকের সাহায্যে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালায় জঙ্গিরা। এতে চার শর বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী জানায়, হামলার পেছনে আল-কায়েদা জঙ্গিদের হাত ছিল।

রাশিয়া : ২০০৪ সালের ১ সেপ্টেম্বর রাশিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় ওসেটিয়া শহরের একটি স্কুল অবরোধ করে চেচেন বিদ্রোহীরা। তারা ৮০০ স্কুল শিক্ষার্থীসহ এক হাজার ২০০ জনকে জিম্মি করে। পরে ৫২ ঘণ্টার ব্যর্থ আলোচনা শেষে রাশিয়ার বিশেষ বাহিনীর সদস্যরা স্কুলের ভেতরে অভিযান শুরু করে। এ সময় বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যসহ ৩৩০ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়, যাদের মধ্যে ১৮৬ শিশু ছিল। পরে এক চেচেন যুদ্ধবাজ নেতা হামলার দায়িত্ব স্বীকার করে নেন।

ইরাক : ২০১৬ সালের জুলাই মাসে বাগদাদের শিয়া অধ্যুষিত এলাকার একটি বাজারে মিনিবাসবোঝাই বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা। এতে ৩২৩ জন নিহত হয়।

মিসর : ২০১৭ সালের আগস্টে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) পতাকা বহনকারী ৩০ জঙ্গি সিনাই উপত্যকার আল-রাওদা মসজিদে হামলা চালায়। সে সময় তাদের করা ব্রাশ ফায়ারে ২৭ শিশুসহ ৩০৫ জন নিহত হয়।

সূত্র : এএফপি।

 

মন্তব্য