kalerkantho

সোমবার । ২০ মে ২০১৯। ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৪ রমজান ১৪৪০

এবার একসঙ্গে সৌদি ছাড়লেন দুই বোন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৌদি আরব থেকে এবার পালিয়ে জর্জিয়ায় গেছেন দুই বোন মাহা আল সুবাই (২৮) এবং ওয়াফা আল সুবাই (২৫)। গত বুধবার তাঁরা টুইটারে এ খবর জানিয়ে নতুন কোনো দেশে বসবাসের জন্য আন্তর্জাতিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছেন। তাঁরা দাবি করেছেন, সৌদি কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে তাঁদের পাসপোর্ট স্থগিত করেছে। টুইটারে পোস্ট করা এক ভিডিওতে মাহা বলেন, ‘আমরা বিপদে আছি। আমাদের মত প্রকাশের জন্য আপনাদের সহযোগিতা প্রয়োজন। আমরা চাই, কোনো দেশ আমাদের স্বাগত জানাক এবং আমাদের অধিকার রক্ষা করুক। অনুগ্রহ করে আমাদের সহযোগিতা করুন।’

এমন আবেদনের প্রেক্ষাপটে জর্জিয়া সরকার বৃহস্পতিবার তাঁদের সহযোগিতা দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করে। রাজধানী বিলিসিতে তাঁদের অ্যাপার্টমেন্টে গিয়ে দেখা করেছে দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ। কিভাবে আশ্রয়ের আবেদন করতে হবে সে বিষয়ক তথ্য তাঁদের জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছে জর্জিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, ‘দুই নারীকে সহযোগিতার প্রস্তাব ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তাঁদের সঙ্গে দেখা করেছে।’

স্থানীয় গণমাধ্যমের তথ্যানুযায়ী, দুই বোনকে একটি নিরাপত্তা ভ্যানে করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন অভিবাসন কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁরা নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হলেও মন্ত্রণালয় অবশ্য বলছে, এই দুজনের কোনো আত্মীয় জর্জিয়ায় নেই, যাদের মাধ্যমে কোনো বিপদ হতে পারে। তাঁদের পাসপোর্ট স্থগিত করার অভিযোগ অস্বীকার করেছে সৌদি দূতাবাস। এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, মাহা এবং ওয়াফার পাসপোর্ট এখনো কার্যকর রয়েছে। দুই বোনের এমন দাবির কোনো সত্যতা নেই বলেও উল্লেখ করেছে সৌদি দূতাবাস। তবে জর্জিয়ার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। এটিকে ইতিবাচক পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করেছে তারা।

সৌদি আরবের আইন অনুযায়ী, কোনো নারীকে কাজ, বিয়ে বা ভ্রমণের জন্য পুরুষ অভিভাবকের অনুমতিপত্র রাখতে হবে। বিভিন্ন অধিকার সংস্থাগুলো এই নিয়মের সমালোচনা করে আসছে। তাদের মতে, এই ব্যবস্থায় অনেক পরিবারে নারীদের বন্দিজীবন কাটাতে হয়। সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য