kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

ভেনিজুয়েলার সাবেক গুপ্তচর প্রধান স্পেনে গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্পেনের পুলিশ ভেনিজুয়েলার সামরিক গোয়েন্দা বিভাগের সাবেক এক শীর্ষ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে। হুগো কারভাজলের বিরুদ্ধে ২০০৬ সালে ভেনিজুয়েলা থেকে মেক্সিকোয় পাঁচ হাজার ৬০০ কেজি কোকেন পাচারের অভিযোগ আছে।

২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র কারভাজলের বিরুদ্ধে তাদের এ অভিযোগের কথা প্রকাশ করে; তাঁকে বহিঃসমর্পণে ওয়াশিংটনের অনুরোধও আছে। ভেনিজুয়েলার প্রয়াত শীর্ষ নেতা হুগো শাভেজের ঘনিষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তা কারভাজল সম্প্রতি দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর পরিবর্তে বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুইদোকে ভেনিজুয়েলার বৈধ প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন।

লাতিনের দেশটিতে হওয়া গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে ‘অবৈধ’ আখ্যা দিয়ে চলতি বছরের জানুয়ারিতে মাদুরো নিজেকে ‘ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট’ ঘোষণা করেছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রসহ অর্ধশত দেশ তাঁকে সমর্থন দিলেও ভেনিজুয়েলার সামরিক বাহিনী ও বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান এখনো মাদুরোর অনুগত।

রাশিয়া-চীনের মতো প্রভাবশালী দেশগুলোও মাদুরোকেই ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্টের স্বীকৃতি দিয়ে আসছে। এল পোলো (দ্য চিকেন) নামে পরিচিত কারভাজল কয়েক দশক ধরেই ভেনিজুয়েলার রাজনৈতিক অঙ্গনের অন্যতম প্রভাবশালী চরিত্র। কলম্বিয়ার ফার্ক বিদ্রোহীদের সহযোগিতা এবং মাদক পাচারের দায়ে ২০০৮ সাল থেকেই তাঁর নাম যুক্তরাষ্ট্রের কালো তালিকায়। যুক্তরাষ্ট্রের বহিঃসমর্পণ অনুরোধে ২০১৪ সালে নেদারল্যান্ডসের নিয়ন্ত্রণে থাকা ক্যারিবীয় দ্বীপ অরুবাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন তিনি। সে সময় অরুবাতে তিনি ভেনিজুয়েলার কনসাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের বহিঃসমর্পণের আবেদন খারিজ হয়ে গেলে ছাড়া পান তিনি। ভেনিজুয়েলায় ফিরে নায়কোচিত সংবর্ধনা পান কারভাজল। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিওতে তিনি গুইদোর প্রতি সমর্থন দিয়ে সেনা কর্মকর্তাদের তাঁর পদাঙ্ক অনুসরণের আহ্বান জানান।

মার্কিন প্রশাসনের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেছেন, কারভাজলকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে আসা গেলে তাঁর কাছ থেকে ভেনিজুয়েলার এখনকার সরকার সম্বন্ধে বিপুল তথ্য পাওয়া যেতে পারে। ভেনিজুয়েলার সাবেক এই গুপ্তচরপ্রধানকে গতকাল শনিবার স্পেনের হাইকোর্টে হাজির করার কথা ছিল। সূত্র : রয়টার্স।

মন্তব্য