kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

রণেশ দাশগুপ্ত স্মরণে বইপড়া প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০৪:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রণেশ দাশগুপ্ত স্মরণে বইপড়া প্রতিযোগিতা

রণেশ দাশগুপ্ত

বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, সাংবাদিক-সাহিত্যিক-প্রাবন্ধিক-লেখক রণেশ দাশগুপ্তের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে উদীচীর আয়োজনে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো রণেশ দাশগুপ্ত গ্রন্থপাঠ প্রতিযোগিতা। গতকাল শনিবার বিকাল ৪টা থেকে সড়ে ৫টা পর্যন্ত সারাদেশে একযোগে অনুষ্ঠিত হয় এ প্রতিযোগিতা। চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, জামালপুর, রংপুরসহ দেশের বেশিরভাগ জেলায় এ প্রতিযোগিতায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয় বিভিন্ন বয়সের প্রতিযোগীরা। 

চারটি আলাদা বিভাগে অনুষ্ঠিত হয় এ প্রতিযোগিতা। বিভাগগুলো হলো ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত, নবম ও দশম শ্রেণী, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী এবং সবার জন্য উন্মুক্ত। চারটি আলাদা আলাদা বিভাগে চারটি নির্দিষ্ট বই পাঠ নিয়ে আয়োজিত হয় এ প্রতিযোগিতা। বইগুলি হলো- সত্যেন সেন রচিত ‘পাতাবাহার’ (৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য), সত্যেন সেন-এর ‘ইতিহাস ও বিজ্ঞান প্রথম খ্ল’ (৯ম ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য), সত্যেন সেন রচিত ‘প্রতিরোধ সংগ্রামে বাংলাদেশ’ (একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য) এবং রণেশ দাশগুপ্তের ‘শিল্পীর স্বাধীনতা প্রশ্নে’ (সবার জন্য উন্মুক্ত)। 

প্রতি জেলায় প্রতিযোগিতা শেষে প্রতিটি প্রতিযোগী বিভাগের সেরা একজনের উত্তরপত্র প্রথমে স্থানীয়ভাবে মূল্যায়ন করা হবে। এরপর প্রতিটি বিভাগ থেকে একজন করে অর্থাত্ এক জেলার মোট চারজনের উত্তরপত্র পাঠিয়ে দেয়া হবে ঢাকায় কেন্দ্রীয় সংসদের কাছে। সেখানে দ্বিতীয় দফা মূল্যায়ন শেষে নির্ধারিত হবে জাতীয় পর্যায়ের চ্যাম্পিয়ন। জাতীয় পর্যায়ের বিজয়ীদের আগামী মার্চ মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উদীচী’র জাতীয় সম্মেলনে পুরস্কৃত করা হবে। 

এছাড়া, প্রতিটি প্রতিযোগী বিভাগের সেরা তিনজনকে আগামী ১৫ জানুয়ারি রণেশ দাশগুপ্তের জন্মদিনে নিজ নিজ জেলায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সনদ প্রদান ও পুরস্কৃত করা হবে। রাজধানীতে উদীচী ঢাকা মহানগর সংসদের গ্রন্থপাঠ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় বাড্ডার আলাতুন্নেছা স্কুলে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা