kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

লোককবি আব্দুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মদিন, শিল্পকলায় দু'দিনব্যাপী অনুষ্ঠান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ এপ্রিল, ২০১৬ ২১:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লোককবি আব্দুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মদিন, শিল্পকলায় দু'দিনব্যাপী অনুষ্ঠান

লোককবি আব্দুল হাই মাশরেকীর ৯৭তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে আগামী ২০ ও ২১ এপ্রিল দুইদিনব্যাপী শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যশালা অডিটোরিয়ামে কবির জীবন ও সাহিত্য অনুষ্ঠান মালার আয়োজন করা হয়েছে।

ব্দুল হাই মাশরেকী গবেষণা কেন্দ্র, নাট্যযোদ্ধা ও গুণিজন ডটকমের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠানের প্রথম দিন উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। উনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি কামাল লোহানী ও প্রধান বক্তা থাকবেন কবি নুরুল হুদা।

দু'দিনের অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি জাফর ওয়াজেদ, অভিনেতা ও নির্মাতা শঙ্কর সাওজাল, চিত্রশিল্পী সৈয়দ লুৎফুল হক, ছড়াকার এম আর মঞ্জু, সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ সেলিম রেজা। পরিবেশিত হবে কবির রচিত দেশত্ববোধক, আধুনিক, পল্লী ও পালাগান।

দ্বিতীয়দিন কবির রচিত 'মানুষ ও লাশ' গল্প অবলম্বনে পরিবেশিত হবে নাটক। ফয়সাল আহমেদের পরিচালনায় নাট্যযোদ্ধা শিল্পীরা এতে অংশ নেবেন। এদিন প্রধান অতিথি থাকবেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। সভাপতিত্ব করবেন কবির ৯৭তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন পর্ষদের আহবায়ক অধ্যক্ষ আবু সাঈদ। ]

১৯১৯ সালে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের কাঁকনহাটি গ্রামের মামার বাড়িতে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮৮ সালে ৪ ডিসেম্বর ঈশ্বরগঞ্জের দত্তপাড়া গ্রামে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান।

তিরিশ-চল্লিশ দশকে অসাম্প্রদায়িক ও মানবতাবাদী কবি আবদুল হাই মাশরেকীর সাহিত্যকর্ম সকলের কাছে সমাদৃত হয়। তার উল্লেখযোগ্য গ্রন্থসমূহ কিছু রেখে যেতে চাই (কাব্য), কুলসুম (গল্প), বাউল মনের নকশা (গল্প), দুখু মিয়ার জারি (গান), সাঁকো (নাটক), আবদুল হাই মাশরেকীর পল্লীগীতি প্রভৃতি। তার এখনো বহু গান ও কবিতা গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়নি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা