kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দাদার ইচ্ছায় রাজার বেশে বিয়ে করতে এলেন বর

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১৪ অক্টোবর, ২০২২ ১৭:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দাদার ইচ্ছায় রাজার বেশে বিয়ে করতে এলেন বর

নওগাঁর ধামইরহাটে দাদার ইচ্ছে পূরণ করতে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করলেন নাতি রাসেল মাহমুদ।   শুক্রবার (১৩অক্টোবর) দুপুরে উপজেলা সদর থেকে হাতির পিঠে চড়ে উমার ইউনিয়নের বেলঘরিয়া গ্রামের উদ্দেশে রওনা দেয়। রাস্তার দুই পাশে হাতি ও বর কে দেখার জন্য উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। এ দিকে পুরাতন দিনের রেওয়াজ অনুসারে হাতি নিয়ে বিয়ে অনুষ্ঠান যাওয়ার এ পরিকল্পনাকে স্বাগত জানান অনেকে।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, ধামইরহাট উপজেলার উত্তর চকযদু মহল্লার সাবেক ইউপি সদস্য মো.আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো.রাসেল মাহমুদ (২৮) এর সাথে উমার ইউনিয়নের বেলঘরিয়া গ্রামের মো.আবু বক্কর সিদ্দিক হেদুলের মেয়ে সাদিয়া খাতুন হিমু (১৯) এর বিয়ে নির্ধারণ করা হয়। শুক্রবার বেলা ১১টায় দিকে বর রাসেল মাহমুদ ভাড়া করা হাতির পিঠে চড়ে কনের বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন। বর পক্ষের অন্যান্য লোকজন মাইক্রোবাস ও মোটর সাইকেলযোগে কনের বাড়ীতে পৌঁছে।

রাসেল মাহমুদের দাদা উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের উত্তর শিববাটি গ্রামের মরহুম আব্দুল আজিজ। তিনি বৃটিশ আমলে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করেন। মরহুম আব্দুল আজিজের আশা ছিল তার নাতি রাসেল যেন হাতির পিঠে চড়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। দাদার ইচ্ছে পূরণ করতে নাতি হাতি ভাড়া করে বিয়ে করতে যায়।  

রাসেল মাহমুদ স্থানীয় মানবসেবা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং উপজেলার ধামইরহাট সিদ্দিকীয় ফাজিল মাদরাসার অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত। তার হাতে গড়া সংগঠন মানবসেবা ২০২২ সালের ৫ জুন প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে বৃক্ষরোপন জাতীয় পুরস্কার এবং ২০১৯ সালে জাতীয় ফলজ পুরস্কার অর্জন করেন।



সাতদিনের সেরা