kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পাঁচবিবিতে বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, ৭ জন আহত

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি   

৭ অক্টোবর, ২০২২ ১৮:৫৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাঁচবিবিতে বিএনপির দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, ৭ জন আহত

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে ৭ নম্বর কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে পাঁচবিবি থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি আ. গফুর মণ্ডলসহ পাঁচজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত একজনকে জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ দুই গ্রুপের নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে সম্মেলন বন্ধ করে দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সংঘর্ষের মধ্যেই ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেছে থানা বিএনপি।

জানা যায়, বিএনপির সাংগঠনিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে শুক্রবার উপজেলার ধুরুইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সামছুল ইসলামকে প্রধান অতিথি করা হয়। সম্মেলনস্থলে বিএনপির বর্তমান কমিটি ও সাবেক কমিটির নেতারা উপস্থিত হন। দুপুর ২টায় সম্মেলন শুরুর আগে প্রধান অতিথি না আসায় সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদ রানা প্রধান, গোলজার হোসেনসহ জেলা বিএনপির নেতারা।

সম্মেলনস্থলে ছিলেন পাঁচবিবি থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি কুসুম্বা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ. গফুর মণ্ডলসহ তার সমর্থিত বিভিন্ন ইউনিয়ন বিএনপির নেতারা। সম্মেলনমঞ্চে গফুর মণ্ডলের নেতাকর্মীরা বিশৃঙ্খলা করছে এ অভিযোগ তুলে গফুর মণ্ডলকে মারধর করতে শুরু করেন বিএনপির বর্তমান কমিটির নেতারা। একপর্যায়ে তাকে মারধর করতে করতে সম্মেলন মাঠের বাইরে নিয়ে আসে বিএনপির বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। এ সময় লাঠিসোঁঠা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার সময় আহত হন আটাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ নওশাদ মণ্ডল, মোহাম্মদপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সম্পাদক জাহিদুল আলম রাব্বু, আওলাই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আ. রাজ্জাক, ধরঞ্জি ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সম্পাদক আজিজার রহমান বাবু, ধুরুইল গ্রামের একলাস, মালিদহ গ্রামের রবিউল ইসলাম। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ এসে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। আহতরা পুলিশি ঝামেলা এড়াতে পাঁচবিবি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন বলে জানান কর্তব্যরত মেডিক্যাল অফিসার নুশরাত জাহান। তিনি জানান, গুরুতর আহত নওশাদ মণ্ডলকে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সম্মেলন বন্ধ করার আগে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি পদে ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক মোস্তাফিজার রহমান ফিজু ও সাধারণ সম্পাদক পদে ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শালাইপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আব্দুল মতিন মাস্টারের নাম ঘোষণা করেন।

পাঁচবিবি থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও জেলা বিএনপির সদস্য কুসুম্বা ইনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ. গফুর মণ্ডল বলেন, এক-এগারোর পর থেকে একাধিক মামলা ও নির্যাতন সহ্য করে আমরা যারা বিএনপি করছি, আমাদের কোনো কমিটিতে রাখা হয়নি। আজকে আমার ইউনিয়নের সম্মেলনস্থলে আমি ও সাবেক নেতারা উপস্থিত হলে জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা আমাকেসহ আমার নেতাকর্মীদের মারধর করে। আমিসহ অনেকেই আহত হয়েছেন।

পাঁচবিবি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম ডালিম বলেন, জেলা ও উপজেলা বিএনপির নীতিনির্ধারকরা সম্মেলনস্থলে থাকা অবস্থায় তারা মঞ্চ দখল ও সম্মেলন করতে বাধা সৃষ্টি করলে নেতাকর্মীরা তাদের প্রতিহত করেছে।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, শুক্রবার দুপুরে ধুরুইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুসুম্বা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলন ছিল। সেখানে বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে পুলিশ গিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনায় যদি কেউ লিখিত অভিযোগ করেন তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সাতদিনের সেরা