kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাতে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শুরু, তীরে ফিরছেন জেলেরা

ভোলা প্রতিনিধি   

৬ অক্টোবর, ২০২২ ১৬:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাতে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শুরু, তীরে ফিরছেন জেলেরা

আজ সকালে ভোলার ইলশা চডারমাথা মাছঘাট থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

মা ইলিশ রক্ষায় আজ বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হচ্ছে ২২ দিনের জন্য মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা। তাই উপকূলীয় জেলা ভোলার জেলেরা নদী থেকে কূলে ফিরে এসেছেন। অনেকে মাছ ধরা বন্ধ হওয়ার আগেই নৌকা সাজিয়ে গান বাজিয়ে বাড়ি চলে যাচ্ছেন। অনেকেই আবার নৌকা ট্রলার তীরে উঠিয়ে রাখছেন।

বিজ্ঞাপন

জেলেরা বলছেন, এই ২২ দিন ইলিশসহ সব ধরনের মাছ শিকার থেকে তারা বিরত থাকবেন। কিন্তু বিকল্প কোনো কর্মসংস্থান না থাকায় তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে সংসার চালাতে গিয়ে চরম বিপাকে পড়তে হবে। এ ছাড়াও মহাজনের দেনা আর এনজিওর ঋণের কিস্তি নিয়ে তাদের দুচিন্তার শেষ নেই।

বৃহস্পতিবার ভোলার বিভিন্ন মাছ ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, জেলেরা তাদের মাছ ধারার জাল ও ট্রলারের অন্যান্য সরঞ্জাম বাড়ি নিয়ে যাচ্ছেন। ট্রলারগুলোকে ধুয়ে ঘাটে তুলে রাখছেন। মাছ ধরার শেষ দিন যেন তাদের কর্মব্যস্ততার শেষ নেই। সকল ঘাটের একই দৃশ্য। এদিকে মাছের আড়তগুলোতেও শ্রমিকরা শেষ দিনে কর্মব্যস্ত সময় পার করছেন। রাত ১২টা বাজলেই নদীতে অভিযানে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে জেলা মৎস্য বিভাগ। মাছ ধরা থেকে জেলেদের বিরত রাখতে কয়েক দিন ধরেই ঘাটগুলোতে সচেতনতামূলক ব্যানার টানিয়ে দিয়েছে মৎস্য বিভাগ। জেলে ও মৎস্যজীবীদের নিয়ে করা হয়েছে সভা-সেমিনার।

জেলেদের অভিযোগ, নিষেধাজ্ঞাকালীন সরকারিভাবে তাদের জন্য যে চাল বরাদ্দ হয় তা সঠিকভাবে তারা পান না। চাল না দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা দিলে তারা সঠিকভাবে পেতেন।  

ভোলা সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. জামাল হোসাইন বলেন, আগামী ২২ দিনের অভিযান সফল করার জন্য ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ অভিযান সফল হলে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে এবং তা জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।



সাতদিনের সেরা