kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

হত্যা-অপমৃত্যু : ২৪ ঘণ্টায় গাজীপুরে ঝরল ৭ প্রাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ অক্টোবর, ২০২২ ২১:৩৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হত্যা-অপমৃত্যু : ২৪ ঘণ্টায় গাজীপুরে ঝরল ৭ প্রাণ

রবিবার রাত থেকে সোমবার দুপুর পর্যন্ত গাজীপুরের টঙ্গীতে স্বামীর হাতে স্ত্রীসহ পৃথক ঘটনায় তিনজন হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। এ ছাড়াও রবিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত নগরীর কোনাবাড়ী থানা এলাকা থেকে এক নারীসহ চারজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে দুজনের মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে।

টঙ্গী পূর্ব থানা সূত্রে জানা গেছে, সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে শৈলারগাতি এলাকার মো. ইয়াসিনের বাড়ির তৃতীয় তলার একটি কক্ষ থেকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় জান্নাতি খাতুন (১৮) নামের এক তরুণীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আগের রাতের সাড়ে ১১টার দিকে স্ত্রী পরিচয়ে জালাল উদ্দিন নামের এক যুবক তাকে নিয়ে বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন। জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য অনুযায়ী, জান্নাতি বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ধনকুণ্ডি গ্রামের মো. আরিফ শেখের মেয়ে।  

থানার উপপরিদর্শক সুমন খান জানান, ধারণা করা হচ্ছে স্বামী পরিচয়দানকারী যুবক রাতে বা ভোরের কোনো এক সময় জান্নাতিকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে গেছেন।

অন্যদিকে বাগবিতণ্ডার জেরে ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন টঙ্গী বাজারের ‘মা মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের’ কারিগর মোস্তফা কামাল (২৪)। রবিবার রাত দেড়টায় দিকে উত্তরার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত মোস্তফা ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার নয়নবাড়ী গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে।

এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত খায়রুল ইসলাম বুলবুলকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে। তিনি বগুড়া সদর থানার ছোট বেলাইল এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে। তিনি ওই মিষ্টির দোকান থেকে মিষ্টি কিনে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করতেন।   

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম জানান, রবিবার সন্ধ্যায় বুলবুল অবিক্রীত মিষ্টি ফেরত দিতে গেলে ‘নষ্ট হয়ে গেছে’ অজুহাতে ফেরত নিতে অস্বীকার করেন মোস্তফা। এতে বুলবুল ক্ষিপ্ত হয়ে গালাগালি করতে থাকেন। এক পর্যায়ে দোকানের মিষ্টির প্যাকেটের সুতা কাটার ছুরি দিয়ে মোস্তফার গলায় আঘাত করেন বুলবুল।

পৃথক এক ঘটনায় সোমবার সকালে মরকুন এলাকার হাতিম গ্রুপের কারখানা থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের (৩৪) মরদেহ উদ্ধার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানার পুলিশ। কারখানার সিলেটিং সেকশনের ফ্লোরে লাশটি পড়ে ছিল। নিহতের মাথা, নাভির বাঁ পাশ এবং পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়াও নাক ও মুখ দিয়ে রক্ত ঝরছিল।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) ডিসি (ক্রাইম) মাহবুব উজ জামান বলেন, কারখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে লাশটি তাদের কোনো শ্রমিকের নয়। তা ছাড়া রবিবার  রাতে সিলেটিং সেকশন বন্ধ ছিল। সকালে নিরাপত্তাকর্মীরা কারখানার ভেতরে অজ্ঞাতপরিচয় মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেন। নিহত ব্যক্তি কারখানার ভেতর কিভাবে গেলেন তা নিশ্চিত হতে কারখানার সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষা  করা হচ্ছে।

অন্যদিকে রবিবার সন্ধ্যার পর নগরীর কোনাবাড়ীর আমবাগ মিতালী ক্লাব এলাকায় মোটরসাইকেলের সাথে ধাক্কায় পথচারী ব্যবসায়ী শামসুজ্জামান শানু (৪৫) ও মোটরসাইকেল আরোহী কলেজছাত্র সৈকত আহমেদ সৌরভ (১৮) নিহত হয়েছেন। ওই দিন দুপুরে কোনাবাড়ীর পুকুরপাড় এলাকার একটি বাসা থেকে নিলু বেগেম (৩০) নামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা পুলিশের।

কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু সিদ্দিক জানান, নিলু বেগম মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার মোহাম্মদ মোল্লার মেয়ে।

একই দিন বিকেলে কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান স্যানেটারি মিস্ত্রি মো. বোরহান (১৮)। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার কাঁঠালিয়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর মর্গে পাঠায়।



সাতদিনের সেরা