kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আগৈলঝাড়ায় যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি   

১ অক্টোবর, ২০২২ ১৬:৩৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আগৈলঝাড়ায় যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা দিনা খানের বিরুদ্ধে প্রশিক্ষকদের সম্মানী ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। প্রশিক্ষকরা সম্মানী ভাতার টাকা চাইতে গেলে ওই কর্মকর্তা বিভিন্ন ধরনের হুমকিধমকি দেন বলেও জানা গেছে।  

জানা গেছে, ২০২১-২২ অর্থ বছরের উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নে ১৪টি ব্যাচে, ৩০ জন করে বেকার যুবক-যুবতিকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রশিক্ষকরা তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সাত দিন করে ১৪টি প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষকদের প্রতিদিন ৫০০ টাকা সম্মানী ভাতা করে মোট ৪৯ হাজার টাকা ভাতা দেওয়ার কথা ছিল। উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার দিনা খান অফিসে বিল করার কথা বলে প্রশিক্ষকদের স্বাক্ষর নেন। এরপর বিল উত্তোলন করে প্রশিক্ষকদের টাকা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ করেন। এ ছাড়া তিনি নিয়মিত অফিসে আসেন না বলেও অভিযোগ উঠেছে।

প্রশিক্ষক ফারুক শেখ, সাইফুল ইসলাম লিটন সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, আমরা নিয়মিত প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তার পরও যুব উন্নয়ন অফিসার দিনা খান আমাদের ভাতার টাকা না দিয়ে বিভিন্ন ধরনের টালবাহনা শুরু করেন। আমরা প্রশিক্ষণের টাকা চাইতে গেলে  ‘আপনাদের টাকা দেওয়া হয়ে গেছে বলে বিভিন্ন হুমকি-ধামকি দিয়ে অফিস থেকে বের হয়ে যেতে বলেন।

এ ব্যাপারে আগৈলঝাড়া উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার দিনা খান বলেন, ‘প্রশিক্ষকদের ভাতার টাকা সকলকে দেওয়া হয়ে গেছে। তারা কেউ আমার কাছে কোনো টাকা পাবেন না। তারা টাকা পাওয়ার মিথ্যা কথা বলছে। আমি নিয়মিত অফিস করছি না এই অভিযোগটি মিথ্যা। ’
এ ব্যপারে আগৈলঝাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘এ বিষয়ে আমার জানা নেই । তবে আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি। ’



সাতদিনের সেরা