kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নিজ এলাকায় সংবর্ধিত হলেন কলসিন্দুরের ৮ ফুটবল কন্যা

হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ২০:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিজ এলাকায় সংবর্ধিত হলেন কলসিন্দুরের ৮ ফুটবল কন্যা

ময়মনসিংহে কলসিন্দুরের সাফ জয়ী আট নারী ফুটবলারকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টায় পৌর শহরের জয়িতা মার্কেট চত্বরে তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এ সময় তাদের বরণ করে নেন সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং।

অনুষ্ঠানে কলসিন্দুরের আট ফুটবলকন্যা- মারিয়া মান্ডা, সানজিদা আক্তার, শিউলি আজিম, মার্জিয়া আক্তার, শামছুন্নাহার সিনিয়র, তহুরা আক্তার, সাজেদা আক্তার ও শামছুন্নাহার জুনিয়রকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

বিজ্ঞাপন

 

সাফজয়ী ফুটবল কন্যাদের পাশাপাশি সংবর্ধনা দেওয়া হয় তাদের গড়ার মূল কারিগর কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী শিক্ষক ও ফুটবল কোচ মো. মফিজ উদ্দিন, বর্তমান কোচ মো. জুয়েল মিয়া, কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যায়ের প্রধান শিক্ষক মিনতী রানী ও দলের টিম ম্যানেজার মালা রানী সরকারকে।

অনুষ্ঠানে ফুটবল কন্যাদের প্রত্যেককে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট ও ফুলের তোড়া দেওয়া হয়।

এর পর জুয়েল আরেং এমপির গাড়ি দিয়ে আট নারী ফুটবলার রওনা হন তাদের নিজ উপজেলা ধোবাউড়ার উদ্দেশে। সন্ধ্যায় পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নারী ফুটবলাদের জন্য আয়োজন করা হয় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান। নিজ উপজেলার মানুষের ভালোবাসা ও আন্তরিকতায় সিক্ত হন ফুটবল কন্যারা।  

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফৌজিয়া নাজনীনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডেভিট রানা চিসিম, ভাইস চেয়ারম্যান আবুল ফজল প্রমূখ। এ ছাড়াও ফুটবলারদের অভিভাবকরা উপস্থিত থেকে দেখেছেন তাদের কন্যাদের প্রতি নিজ উপজেলার মানুষের ভালোবাসা।

এ সময় শুভেচ্ছা বক্তব্য দিতে গিয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন ফুটবল কন্যারা।  

বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সহকারী অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলেন, 'এই উপজেলার মাটি আমাদের শরীরে লেগে আছে। এই মাটিতেই আমরা বড় হয়েছি। অনেকবার এসেছি উপজেলা পরিষদ চত্বরে। কিন্তু আজ সবকিছু নতুন মনে হচ্ছে। আমরা আপনাদের সন্তান হিসেবে নিজ ভূমিতে এতো ভালোবাসা পাবো ভাবতেও পারিনি। আপনাদের সমর্থন ও ভালোবাসার কারণে আমরা সাফ জয়ী হিসেবে বাংলাদেশের নাম উজ্জল করতে পেরেছি। আপনাদের অকুণ্ঠ সমর্থনের কারণে আমরা আজ এ পর্যায়ে আসতে পেরেছি। আমরা আপনাদের ভালোবাসা ও সমর্থন সবসময় চাই। '



সাতদিনের সেরা