kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

'পদ্মা সেতুর আরো সুফল পাওয়া যাবে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শেষ হলে'

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৯:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'পদ্মা সেতুর আরো সুফল পাওয়া যাবে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শেষ হলে'

করোনার ও ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের ধাক্কা শেষ হয়ে গেলে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ পদ্মা সেতু ও পায়রা বন্দরের সুফল ভোগ করতে পারবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু ও পায়রা বন্দরের কারণে দক্ষিণাঞ্চের মানুষের জীবনযাত্রার মানউন্নয়ন হয়েছে। এখানে বিনিয়োগ বেড়েছে। শিল্প কল কারখানা হবে।

বিজ্ঞাপন

এতে অসংখ্য মানুষের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। জমির মূল্য আগের চেয়ে অনেক বৃদ্ধি পাবে। ফলে এ অঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হবে।

আজ শুক্রবার বিকেলে ঝালকাঠি পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শহরের কৃষ্ণকাঠি পেট্রোলপাম্প মোড়ে তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সেখানেই এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

আমির হোসেন আমু বলেন, সুগন্ধা নদী ভাঙনের কবল থেকে কৃষ্ণকাঠিবাসীকে রক্ষার জন্য ইতোমধ্যেই প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে বলেছি, দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। এ ছাড়া এ ওয়ার্ডের সকল পুরনো রাস্তাঘাট সংস্কার জন্য পৌর মেয়রকে বলা হয়েছে। এই এলাকার মানুষ যাতে শান্তিতে থাকে, তাঁর সব ব্যবস্থা করা হবে। আপনাদের সকল দাবি অনুযায়ী কাজ করা হবে, শুধু আপনারা আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করুন।

পৌরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসএম আল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর মেয়র মো. লিয়াকত আলী তালুকদার ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান।

আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক তরুণ কর্মকার, সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিল, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম জাকির, যুবলীগ নেতা কামাল শরীফ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম শফিক ও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম পারভেজ।



সাতদিনের সেরা