kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফুটবলার আঁখিকে দেওয়া জমির বিষয়ে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ২০:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফুটবলার আঁখিকে দেওয়া জমির বিষয়ে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার

ফাইল ছবি

সাফজয়ী নারী ফুটবল দলের সদস্য আঁখি খাতুনকে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া আট শতাংশ জমির উপর দায়ের করা মামলা বাদী প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। সোমবার দুপুরে মামলার বাদী হাজী মকরম প্রামাণিক সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর মামলাটি প্রত্যাহারের আবেদন করেন।

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরিকুল ইসলাম বলেন, ফুটবলার আঁখির জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত ৮ শতাংশ জমির একটি প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়। গত ৪ জুন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার জমির দলিল হস্তান্তর করেন।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি হাজী মকরম প্রামাণিক নামে এক ব্যক্তি ওই জমি তাদের দখলে রয়েছে দাবী করে মামলা দায়ের করেন। তবে মামলার তফসিলে তিনি খতিয়ান উল্লেখ বা জমিটির মালিকানা দাবী করেননি।  
আজ (সোমবার) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী নিজেই মামলাটি প্রত্যাহারের আবেদন করলে মামলাটি খারিজ হয়ে যায়।

ফুটবলে অবদান এবং দরিদ্র পরিবারের কথা বিবেচনা করে তিন বছর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শনায় আঁখিকে জমি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেই জমির মালিকানা দাবি করে শাহজাদপুরের একজন ব্যবসায়ী মামলা দায়ের করেন। জমি নিয়ে সমস্যার কথা আঁখি বাফুফে সভাপতিকে জানায়।  

বাফুফে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলে। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসন ওই জমির বরাদ্দ বাতিল করে ১ নম্বর খাস খতিয়ানভুক্ত ৮ শতাংশ জমি আঁখির নামে বরাদ্দ দেয়। গত ৪ জুন এই জমির দলিল হস্তান্তর করা হয়।  

এদিকে সম্প্রতি আঁখি খাতুনকে বরাদ্দ দেওয়া ওই জমির দখল নিয়ে হাজী মকরম প্রামাণিক আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় আঁখিসহ পাঁচজনকে বিবাদী করা হয়। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে মামলার নোটিশ নিয়ে এএসআই মামুনুর রশিদ ও কনস্টেবল আবু মুসা আঁখির গ্রামের বাড়িতে গেলে তার বাবার সাথে বাগবিতণ্ডা হয়। এ নিয়ে সিরাজগঞ্জসহ সারাদেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরবর্তীতে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার ওই দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেন।



সাতদিনের সেরা