kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

কোন মানদণ্ডে পাকিস্তান ভালো ছিল, প্রশ্ন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৭:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোন মানদণ্ডে পাকিস্তান ভালো ছিল, প্রশ্ন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীর

মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধন শেষে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী। ছবি- কালের কণ্ঠ।

যারা বলে স্বাধীন বাংলাদেশের চেয়ে পাকিস্তান ভালো ছিল তাদেরকে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী বলেছেন, 'আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যালটের মাধ্যমে প্রমাণ দেওয়া হবে। '

আজ সোমবার বেলা ১২টার দিকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক শরীয়তপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন শেষে এমন মন্তব্য করেন।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, 'দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সব ধরনের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে সরকার। প্রত্যেক জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নির্মিত প্রত্যেকটি মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে ক্যাপসুল লিফট বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার কারণে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মাণাধীন বন্ধ থাকা ঘরগুলো দ্রুততম সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে। '

তিনি বলেন, 'প্রত্যেক বীর মুক্তিযোদ্ধার কবর একই নকশায় পাকা করে বাঁধাই করা হবে। ইতিমধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মার্ট আইডি কার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে। '

কোন মানদণ্ডে পাকিস্তান ভালো ছিল জাতির সামনে তুলে ধরে এবং দেশবাসীকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী আরো বলেন, '৭৫ এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার এ কথা দিয়ে কি বুঝাতে চাইছে বিএনপি? তারা কি আবার বঙ্গবন্ধুর রক্তের ছিটেফোঁটা যা আছে আজকের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চায়? তাদের উদ্দেশ্য জাতির সামনে পরিষ্কার করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধারা প্রয়োজনে আবারও ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নেতৃত্ব দিবে। '

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'রাজাকারদের তালিকা প্রস্তুতের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। শীঘ্রই দেশের সকল রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করা হবে। '

এর আগে বেলা ১১টার সময় জেলা শহরের পালং স্কুল সড়কে সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- শরীয়তপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুর ৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার মো. সাইফুল হকসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। পরবর্তীতে জাজিরা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনেরও উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।



সাতদিনের সেরা